ডিএনসিসি ৫০নং ওয়ার্ডে আসকের তৃতীয় দিনের মশক নিধন কর্মসূচি (ভিডিও)


» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ - ১০:৫৮:১৮ অপরাহ্ন

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ঢাকা মহানগরের উদ্যোগে আজ ১২ সেপ্টেম্বর (বৃহঃস্পতিবার) ৩য় দিনের মত ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলক মশক নিধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। সকালে ডিএনসিসি ৫০নং ওয়ার্ডে এই মশক নিধন কর্মসূচি পালন করা হয়। উক্ত মশক নিধন কর্মসূচিটিতে উপস্থিত ছিলেন ডিএনসিসি ৫০নং ওয়ার্ডের জনদরদী কাউন্সিলর আলহাজ্ব ডি এম শামীম। এ সময় আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ঢাকা মহানগরের সভাপতি মোঃ জাহিদুল ইসলাম (জর্জ), সিনিয়র সহ-সভাপতি হাসানুজ্জামান আকন্দ (স্বপন), সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী এ.এস.এম সায়েম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ক্বারী মোঃ বাবুল মোল্লা, ফজলুল হক, মাহমুদা ইদ্রিস, জেপলিন ভূঁইয়া, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক কে এ জামান, প্রচার সম্পাদক রুদ্র দাশ অর্পণ, আজহার উদ্দিন, মার্জিয়া খাতুন স্বর্ণা, নাজমুন নাহার প্রমুখ মানবাধিকার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এডিস মশা ধ্বংস ও বংশ বিস্তার নির্মূলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ঢাকা মহানগর কর্তৃক উক্ত জনসচেতনতামূলক কর্মসূচিটিকে সাধুবাদ জানিয়ে ৫০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ডি এম শামীম উত্তরা নিউজকে বলেন, “মশার বংশ বিস্তাররোধে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। আজ মানবাধিকার সংস্থা আইন সহায়তা কেন্দ্রও এসে আমাদের সাথে যুক্ত হয়েছে। এতে আমি মনে করি, মানুষ নিজ নিজ আঙিনা ও পরিবেশ পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখার একটি ভালো বার্তা পাবে। যা মশার বংশ বিস্তার প্রতিরোধে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।” এসময় তিনি আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ঢাকা মহানগর কমিটির নেতৃবৃন্দকে বিশেষ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

উক্ত মশক নিধন ও জনসচেতনতামূলক কর্মসূচি সম্পর্কে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ঢাকা মহানগরের সভাপতি মোঃ জাহিদুল ইসলাম (জর্জ) উত্তরা নিউজকে বলেন, আমরা ৩য় দিনের মত কর্মসূচি সম্পন্ন করতে পেরেছি। ডিএনসিসি ৫০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ডি এম শামীম সাহেবের সার্বিক সহযোগিতায় আমরা এ কাজ করতে সম্পন্ন হয়েছি। এ জন্য তাঁকে আইন সহায়তা কেন্দ্রের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাই। সেই সাথে মশক নিধন জনসচেতনতামূলক কর্মসূচিটিতে স্থানীয় এলাকাবাসীও উপস্থিত ছিলেন। আমাদের বিশ্বাস ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে সামনের দিনগুলোতে আমরা আরও এগিয়ে যাবো।

এ সময় ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে এডিস মশা নির্মূল করতে জনসচেতনতা বৃদ্ধির বিকল্প নেই বলে আইন সহায়তা কেন্দ্রের (আসক) সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী এ.এস.এম সায়েম উত্তরা নিউজকে জানান, আসলে সারাদেশে ডেঙ্গুর যে প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছিল তা অনেকটা হলেও বর্তমান সময়ে সরকারসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকাণ্ডের সেটি হ্রাস পেয়েছে। সরকারের পাশাপাশি আমরাও আইন সহায়তা কেন্দ্রের মানবাধিকার কর্মীরা এডিস মশা নির্মূলে কাজ করে যাচ্ছি। কার্যক্রমের আগামী দিন গুলোতে আমরা ডিএনসিসি ২৩ ও ২৬নং ওয়ার্ডে কর্মসূচি পালন করব। আশা স্থানীয় জনগণও আমাদের সাথে সম্পৃক্ত হবেন।

উল্লেখ্য যে, এর আগে ডিএনসিসি ৫১ ও ৫২নং ওয়ার্ডে ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে মশক নিধন কর্মসূচি সম্পন্ন করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ঢাকা মহানগরের নেতৃবৃন্দগণ।