উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


টঙ্গীতে হাসপাতালে বিয়ে কাণ্ড! ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে নিহত বাস যাত্রী






নাঈমুল হাসান, টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি: হাসপাতালের মধ্যে বিয়ের অনুষ্ঠান! গাজীপুরে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে উচ্চ শব্দে বাংলা-হিন্দি গান বাজিয়ে গেল ৬ সেপ্টেম্বর, সপ্তাহের শেষ দিন (শুক্রবার) একটি বিয়ের অনুষ্ঠান নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে সচেতন মহলে। গানের পাশাপাশি নাচের ঘটনায় আরও ক্ষুদ্ধ হয়েছেন অনেকেই। অথচ অনুষ্ঠানস্থলের পাশের কক্ষেই শুয়েছিলেন রোগীরা। রোগীদের স্বজনদের অভিযোগ, এমন একটি জায়গায় বিয়ের আয়োজন করায় রোগীদের অসহনীয় যন্ত্রণার শিকার হতে হয়েছে। ভুক্তভোগীরা জানান, হাসপাতালের বাবুর্চি আলী আজগরের মেয়ে সুমি আক্তারের বিয়ে উপলক্ষে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালের ভেতরেই আনুষ্ঠানিকতা চলে। বিয়ে আয়োজনের অনুমতি দেন ওই হাসপাতালের পরিচালক ডা. কমর উদ্দিন।

শুক্রবার দুপুরে অনুষ্ঠান, তাই বৃহ¯পতিবার বিকাল থেকে উচ্চ শব্দে বাংলা-হিন্দি গান বাজানো হয়েছিল স্থানটিতে। সপ্তাহের শেষ দিন গাজীপুরের টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালের তৃতীয় তলায় ঘটে গিয়েছে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন ও রোগীদের স্বজনেরা ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। বিষয়টি নিয়ে হাসপাতালের তত্বাধায়ক কমর উদ্দিন প্রতিবেদককে বলেন, ‘বাবুর্চি আলী আজগর হাসপাতালের একজন স্টাফ। মানবিক কারণে তার মেয়ের বিয়ের আয়োজনের অনুমতি দেওয়া হয়।’ তবে রোগীদের সমস্যার বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তিনি কোনও জবাব দেননি।

অপরদিকে, টঙ্গীতে এসে ০৭ সেপ্টেম্বর, শনিবার দিন ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে কামরুল ইসলাম (৩৫) নামের এক ব্যক্তি মারা গেছে। এ বিষয়ে নিহত কামরুল ইসলামের ভাগ্নে প্রতিবেদককে জানান, কোম্পানীর কাজে মিটিংয়ে যোগ আসলে, ভোর ৪টার দিকে টঙ্গীর কলেজ গেইট এলাকায় বাস থেকে নামার পর ছিনতাইকারীররা তার ব্যাগ ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়া চেষ্টা করে। মামা বাধা দিলে তারা তাকে ছুরি মেরে মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ ও টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ সময় তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট থানার পুলিশ এখন পর্যন্ত খুনের ঘটনায় জড়িত কোন ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।