টঙ্গীতে সাব-রেজিষ্টারসহ স্থায়ী সকল কর্মকর্তা-কর্মচারি বরখাস্ত


» আশরাফুল ইসলাম | ডেস্ক এডিটর | | সর্বশেষ আপডেট: ০৫ অক্টোবর ২০১৯ - ০৩:৩৯:১৭ অপরাহ্ন

টঙ্গী সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের সাব-রেজিষ্টার মো. মোশারফ হোসেন চৌধুরীকে প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহণ ও দূর্নীতির অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়াও কেরানি, মোহরার ও পিয়নসহ সকল স্থায়ী কর্মকর্তা-কর্মাচারিদেরকে বরখাস্ত করা হয়। গত বুধবার তাদের বরখাস্ত করা হয়।

টঙ্গী সাব-রেজিষ্ট্রি অফিস সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি টঙ্গী সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের সাব-রেজিষ্টার মো. মোশারফ হোসেন চৌধুরী ও তার কেরানী মো. নুরুল ইসলাম কর্তৃক নির্দিষ্ট অংকের জমি রেজিষ্টেশন ফি নেয়ার কথা থাকলেও সাব-রেজিষ্টার বিভিন্ন অজুহাতে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করেন নিজ খাস কামরায় বসে।

অপরদিকে লাখ টাকা ভর্তি খাম ও টাকার বান্ডিল কেরানীর অফিসে বসে কেরানী মো. নুরুল ইসলাম আদায় করার পর তা রেজিষ্টার ও কেরানীসহ অন্যান্যরা ভাগ করে নেন। এমন একটি ভিডিও চিত্রসহ একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নজরে আসে। পরে গত বুধবার সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ তাকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করেছে বলে সূত্রটি জানায়।

এব্যাপারে টঙ্গী সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের দলিল লেখক সমিতির সভাপতি মো. নুরুল ইসলাম ভেন্ডার জানান, ঘুষ গ্রহণ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশের পর সাব-রেজিষ্টার মো. মোশারফ হোসেন চৌধুরীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে গাজীপুর সদর সাব রেজিষ্ট্রি অফিসের সাব-রেজিষ্ট্রার মো. মনিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ৭১ টেলিভিশনের সাংবাদিককে মারধর এবং সাব-রেজিষ্টারের ঘুষ-দুর্নীতি সংক্রান্ত বিষয়ে ওই টেলিভিশনে সংবাদ প্রচার হয়েছিল। এ ঘটনায় টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ দিয়েছিলেন। এ ঘটনায় কিনা আমি জানিনা। তবে টঙ্গী সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের সাব-রেজিষ্টার, মোহরার, কেরানি নূরুল ইসলাম, পিয়ন মুজিবসহ সব স্থায়ী কর্মকর্তা-কর্মচারি বরখাস্ত হওয়ার বিষয়টি আমাদের ওয়েব সাইটে দেয়া আছে।