উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


জাতীয় ও অনলাইন পত্রিকার সম্পাদকদের সাথে ডিএনসিসি মেয়রের আলোচনা সভা






ঢাকা, ২৯ জুলাই: আজ বেলা সাড়ে ১১টায় দেশের জাতীয় দৈনিক ও অনলাইন পত্রিকার সম্পাদকদের সাথে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলামের এক মতবিনিময় সভা গুলশান ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময় সভার মেয়র জানান মশার ঔষধ ক্রয় নিয়ে সকল সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে। এখন থেকে ডিএনসিসি সরাসরি ঔষধ আমদানি করতে পারবে। মশক নিধন কর্মী ও পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের মনিটরিং করার জন্য জিপিএস ট্র্যাকার এর সাহায্য নেয়া হবে। তিনি আরো বলেন এখন থেকে বছরব্যাপী ডেঙ্গু নিয়ে কাজ করতে হবে এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, দুই সিটি কর্পোরেশন, উদ্ভিদ সংরক্ষণ বিভাগ সবাইকে নিয়ে একটি ডেঙ্গু গবেষণা কেন্দ্র চালু করা প্রয়োজন।

প্রতিদিনের সংবাদ’ এর সম্পাদক রাহাত খান বলেন, আমরা অনেকটা যুদ্ধের মধ্যে আছি। ক্ষুদ্র একটি প্রাণী গোটা বিশ্বকে কাঁপিয়ে দিচ্ছে। এই যুদ্ধে আমাদেরকে জিততে হবে। তবে এই যুদ্ধে নাগরিকদের বড় ভূমিকা রয়েছে। প্রত্যেককেই নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করলে কাজ সহজ হয়ে যায়।

‘বাংলাদেশ প্রতিদিন’ এর সম্পাদক নঈম নিজাম বলেন, মেয়র আতিকুল ইসলামের সিন্ডিকেট ভাঙার উদ্যোগ এবং জিপিএস ট্র্যাকার চালু করার উদ্যোগ নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়। তবে এ সকল উদ্যোগের বাস্তবায়ন জরুরি। গণমাধ্যমগুলো জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ডিএনসিসিকে সব ধরনের সহযোগিতা করবে বলে তিনি আশ্বাস প্রদান করেন । ওয়ার্ড কাউন্সিলরদেরকে তিনি জবাবদিহি ও দায়বদ্ধতার আওতায় নিয়ে আসার জন্য পরামর্শ প্রদান করেন।

‘সারা বাংলা’র সম্পাদক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা বলেন, শহরে বিভিন্ন চলমান উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ফলে নির্মাণাধীন প্রকল্পের ভেতরে এবং বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠান ভেতরে কোথাও পানি জমে আছে কিনা তা মনিটর করা প্রয়োজন।
‘ভোরের কাগজ’ এর সম্পাদক শ্যামল দত্ত বলেন, ডেঙ্গু রোগ সম্পর্কে সারা বছর ধরে কাজ করতে হবে যেখানেই নগরায়ন হচ্ছে সেখানেই ডেঙ্গু সমস্যা দেখা দিচ্ছে। তিনি প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে পরিছন্নতা এবং ডেঙ্গু মোকাবেলার বিষয়ে তাদের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নেয়ার আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, এ বছর আবহাওয়া ডেঙ্গু রোগ বিস্তারের জন্য অনুকূল। তাই ডেঙ্গুর প্রকোপও বেশি।

ডেইলি অবজারভার এর সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন ডেঙ্গু মোকাবেলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকল ধরনের পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ প্রদান করেছেন। ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোগ সম্পর্কে গবেষণার জন্য একটি গবেষণা সেল গঠন করার উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন ডেঙ্গু রোগের ধরণ পাল্টাচ্ছে তাই এটা নিয়ে আমাদের গবেষণা করতে হবে। ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের অনুপ্রাণিত করে এডিস মশা নির্মূলে কাজ করার জন্য তিনি মেয়রের প্রতি আহ্বান জানান। তাছাড়া সকল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে স্বল্পমূল্যে ডেঙ্গু রোগের চিকিৎসা ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য তিনি অনুরোধ জানান।

সকলের বক্তব্য শোনার পরে মেয়র বলেন, “আপনাদের সবাইকে সাথে নিয়ে, জনগণকে সাথে নিয়ে জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করব। ডেঙ্গু মোকাবেলায় ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এখন থেকে বছরব্যাপী সক্রিয়ভাবে কাজ করবে। মশক নিধন কর্মী ও সুপারভাইজারদের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধির জন্য তাদের মনিটরিং কার্যক্রম জোরদার করা হবে। ঔষধ আমদানির লক্ষ্যে সকল ধরনের সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন ডিএনসিসি ৫জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করবে যারা বিভিন্ন ভবনে এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে গিয়ে এডিস মশার বংশ বিস্তারের উৎস আছে কিনা এবং হাসপাতালগুলোতে নির্ধারিত মূল্যে ডেঙ্গু রোগের চিকিৎসা হচ্ছে কি না এসব বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডেইলি সান এর সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরী, বণিক বার্তার সম্পাদক দেওয়ান হানিফ মাহমুদ, abnews24 এর সম্পাদক সুভাষ সিংহ রায়, সমকালের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুস্তাফিজ শফি, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার প্রধান বার্তা সম্পাদক আনিসুর রহমান, বাংলানিউজ 24 এর সম্পাদক জুয়েল মাজহার, আমাদের নতুন সময় এর সম্পাদক মাসুদা ভাট্টি প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।