চীনে মুসলিমদের উপর নির্যাতনের প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ


» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ১১ মে ২০১৯ - ০১:০৫:১১ অপরাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক: চীনে মুসলিমদের ওপর অত্যাচারের প্রতিবাদে যুব আন্দোলনের প্রতিবাদ মিছিল কমিউনিস্ট রাষ্ট্র গণচীনে উইঘুর মুসলমানসহ অনেক মুসলমানদের ওপর নির্যাতন নিপিড়নের বিরুদ্ধে রাজধানী ঢাকায় প্রতিবাদ মিছিল করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সহযোগী সংগঠন ইসলামী যুব আন্দোলন বাংলাদেশ। আজ (৯ মে) বাদ জুমা জাতীয় মসজিদ বায়তুল মুকাররামের উত্তর গেইটে চীনের মুসলমানদের উপর বর্বর নির্যাতন ও রোজা রাখতে বাধা দেয়ার প্রতিবাদে ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক মুফতি শেখ মুহাম্মদ নুর উন – নাবীর সভাপতিত্বে বিক্ষোভ মিছিল আয়োজিত হয়। আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম বলেন, চীনের মুসলিমদের উপর যেভাবে অমানবিক নির্যাতন ও হামলা হচ্ছে তা কোনোভাবে মেনে নেয়া যায়না। মুসলমানরা ঐ অঞ্চলে যুগ যুগ ধরে বসবাস করে আসছে। তারপরও তাদের ধর্মীয় স্বাধীনতায় নগ্ন হস্তক্ষেপ এবং নারী ও শিশুদের উপর নির্যাতন বিশ্বমানবতাকে প্রশ্নববিদ্ধ করছে। তাই অনতিবিলম্বে বিশ্ব নেতাদের এ বিষয়ে সমাধানের পথ খুঁজে বের করতে হবে। তিনি আরও বলেন, সারা বিশ্বের মুসলিমরা নির্যাতিত হবে আর জাতিসংঘ নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করবে এমন জাতিসংঘ বিশ্বমানবতার জন্য অভিশাপ। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা এই বিষয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিমদের দেশ বাংলাদেশ সরকারকে কার্যকরী ভূমিকা পালন করার আহবান জানান।  বিক্ষোভ পুর্ব সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় প্রকাশনা সম্পাদক এস এম আজিজুল হক, কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক ইলিয়াস হাসান, কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক মাহবুব আলম, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের সেক্রেটারি জেনারেল মুস্তাকিম বিল্লাহ, যুব আন্দোলন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি মুফতি মানসুর আহমদ সাকী, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম প্রমুখ। প্রসঙ্গত : চীনে মুসলমানদের উপর নির্যাতন নিপিড়ণের মাত্রা পূর্বের যেকোনো সময়ের চেয়ে অনেক বেড়েছে বলেই আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম গুলোর খবর। উইঘুর মুসলমান সহ দেশের মুসলমানদের ধর্মীয় রিতি নীতি পালনে বাধা দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে চীনের কমিউনিষ্ট সরকারের উপর। মুসলমানদের রোজা রাখাসহ তাদের ধর্মীয় অধিকার ক্ষুন্ন করা হচ্ছে এসব নিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে অনেক রিপোর্ট প্রকাশিত হলেও জাতিসংঘ নীরব ভূমিকায় রয়েছে।