চীনে ইন্টারন্যাশনাল শিক্ষার্থীদের বরণ ও স্কলারশিপ প্রদান অনুষ্ঠিত


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ২১ নভেম্বর ২০১৯ - ১২:১৯:০৪ অপরাহ্ন

চীন প্রতিনিধিঃ- চীনের জিয়াংসু প্রদেশের থাইজু শহরে অবস্থিত জিয়াংসু এগ্রি-এনিম্যাল হাজভেন্ডারী ভোকেশনাল কলেজে ১ম বর্ষের ইন্টারন্যাশনাল শিক্ষার্থীদের বরণ এবং দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের  শিক্ষার্থীদের স্কলারশিপ প্রদান করা হয়।
১৯ শে নভেম্বর মঙ্গলবার বিকাল ২টা ৩০ মিনিটে কলেজ লাইব্রেরি  অডিটোরিয়ামে কলেজের ইন্টারন্যাশনাল ডিপার্টমেন্ট এবং পরিচালনা পর্ষদের পরিচালক শিক্ষকবৃন্দ, ইন্টারন্যাশনাল শিক্ষার্থীদের প্রধান শিক্ষকগণ এবং বিশ্বের প্রায় ২৫ টি দেশের ইন্টারন্যাশনাল শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
উপস্থিত অতিথিবৃন্দ এবং শিক্ষার্থীরা সম্মানপ্রদর্শন পূর্বক দাঁড়িয়ে চীনের জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়৷ এরপর অতিথিবৃন্দ বিভিন্ন দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্যের মধ্য দিয়ে চীনের বিভিন্ন প্রদেশ থেকে আগত ও বিশ্বের অন্য দেশ থেকে আগত ১৫০০০ পড়ুয়া শিক্ষার্থীর এই কলেজে নতুন ইন্টারন্যাশনাল  শিক্ষার্থীদের স্বাগতম জানান।
ইন্টারন্যাশনাল শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে তৃতীয় বর্ষের বাংলাদেশি শিক্ষার্থী মুন্না আহমেদ তার বক্তব্যে বলেন, “আমাদের কলেজের শিক্ষার মান যেমন উন্নত তেমনি কলেজের পরিবেশ, শিক্ষকদের আচরণ সব মিলিয়ে আমাদের মনকে ছুঁয়ে যাবে। আর আশা করি আমরা উচ্চ শিক্ষা অর্জন করে নিজের দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারবো৷”
অতিথি এবং শিক্ষার্থীদের বক্তব্য শেষে, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের সাফল্য অর্জনের জন্য ৪ টি ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন ডিপার্টমেন্ট এর ৭৯ জন ইন্টারন্যাশনাল শিক্ষার্থীদের হাতে অতিথিরা স্কলারশিপ সার্টিফিকেট এবং নগদ অর্থ তুলে দেন।
বাংলাদেশী শিক্ষার্থী জাহিদ হাসান তুহিন তার অনুভূতি প্রকাশে বলেন, “সাফল্য অর্জনের কারণে ৭৯ জন ইন্টারন্যাশনাল শিক্ষার্থীকে কলেজ কর্তৃক স্কলারশিপ প্রদান করা হয়, তন্মধ্যে আমরা ৩৮ জন বাঙালি রয়েছি৷ এটা সত্যিই আমাদের জন্য গর্বের বিষয়। ভবিষ্যতে ও আমরা আমাদের এই সাফল্য ধরে রাখতে চাই। বিশ্বের মাঝে বাংলাদেশকে তুলে ধরতে চাই।”
স্কলারশিপ সার্টিফিকেট প্রদানের শেষে বিরতি দেওয়া হয়৷ বিরতির পর অনুষ্ঠান শুরু হলে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে চায়না পুলিশের থাইজু ব্যুরোর উর্ধ্বতন অফিসারগণ চীনের আইন এবং বিধিনিষেধ সম্পর্কে দিকনির্দেশনা প্রদান এর মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি করেন।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ও চীন সরকারের তত্ত্বাবধায়নে ২০১৭ সাল থেকে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে চায়না ডিটিই স্কলারশিপ শুরু হয়। এবং   জিয়াংসু এগ্রি-এনিম্যাল হাজভেন্ডারী ভোকেশনাল কলেজে ২০১৭ সালে ৭৪ জন, ২০১৮ সালে ৪৪ জন এবং ২০১৯ সালে ৮ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী শিক্ষা লাভের জন্য আসেন।