চারশো শ্রমিকের বেতন না দিয়ে উধাও পোশাক কারখানা

উত্তরায় বকেয়া বেতনের দাবীতে ভবন ঘেরাও

» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ১৬ জুলাই ২০২০ - ১১:৩৩:২১ পূর্বাহ্ন

বকেয়া বেতনের দাবীতে ‘টার্গেট সোয়েটার ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ’ নামের এক পোশাক তৈরি কারখানার প্রধান কার্যালয় ঘেরাও করেছে কয়েকশ’ শ্রমিক। গতকাল উত্তরা ৪নং সেক্টরের ১০নং রোডস্থ ৬নং বাড়ির সামনে বকেয়া বেতনের দাবীতে অবস্থান নেয় শ্রমিকরা। শ্রমিকরা জানায়, রাজধানীর বাড্ডাতে টার্গেট সোয়েটার ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ এর পোশাক তৈরির কারখানা ছিল। সেখানে প্রায় সাড়ে চারশো’র মত শ্রমিক দীর্ঘদিন ধরেই কর্মরত ছিল।

চলমান করোনা পরিস্থিতিতে শ্রমিকদের ছুটি দিয়ে রাতের অন্ধকারে কারখানা হতে সকল মেশিনপাতি নিয়ে উধাও হয়ে গেছে বলে জানায় বিগত কয়েক বছর যাবৎ কারখানাটিতে কর্মরত শ্রমিকরা। বুধবার সকালে উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীদের এমনই তথ্য জানিয়েছে বাড়িটির সামনে অবস্থান নেয়া শত শত শ্রমিক। এসময় বকেয়া বেতন প্রাপ্তিই একমাত্র দাবী হিসেবে উঠে এসেছে।
শিউলি বেগম নামের এক নারী শ্রমিক জানায়, ‘পনের বছর ধরে এই কারখানায় কাজ করি। করোনার ভেতরে ছুটির কথা বলে রাতের অন্ধকারে টার্গেট সোয়েটার ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ এর মালিকপক্ষ সকল জিনিস-পত্র (মেশিনারিজ) নিয়ে চলে যায়। আমাদের সাড়ে চারশো শ্রমিকের কয়েক মাসের বেতন বকেয়া ছিল। আমরা এই খবর জানতে পেরে কারখানার সামনে (বাড্ডায়) অবস্থান নিলে মালিকপক্ষের লোকজন সেখানকার স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাদের সাথে নিয়ে আমাদের নানারকম হুমকি-ধামকি দেয়। তারপর আমরা ন্যায্য বেতনের দাবীতে উত্তরাতে কোম্পানীর হেড অফিসে কয়েক বার আসি। কিন্তু, এখানেও টার্গেট সোয়েটার ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ এর মালিক আমাদের বেতন না দিয়ে নানারকম হুমকি দিয়ে আসছে।’

পোশাক তৈরি প্রতিষ্ঠানটির কাছে বকেয়া বেতনের দাবীতে অবস্থান নেয়া রাজ নামের আরও এক পোশাক শ্রমিক জানায়, ‘আমরা এর আগেও উত্তরায় কোম্পানীর হেড অফিসে আসি। কিন্তু, সেদিন পুলিশের মধ্যস্থতায় মালিকপক্ষ আমাদের সাথে গতকাল (১৪ জুলাই) বাড্ডার কারখানায় বসার কথা থাকলেও মালিকপক্ষ আমাদের সাথে বসেনি। তাই আজ আমরা আবারও হেড অফিসে এসেছি।’

জানা যায়, টার্গেট সোয়েটার ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ নামের ওই পোশাক তৈরি প্রতিষ্ঠানের মালিকের নাম আজহার উদ্দিন। শ্রমিকদের এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সোয়েটার ইন্ডা. লিঃ কর্তৃপক্ষের বক্তব্য জানতে ওই বাড়ির ৪র্থ তলায় অবস্থিত প্রতিষ্ঠানটির কার্যালয়ে প্রবেশ করতে চাইলে উপস্থিত একাধিক পত্রিকা ও টেলিভিশনের সাংবাদিকদের প্রবেশ করতে দেয়নি মালিকপক্ষ। এ সময় ভেতরে পুলিশ সদস্যদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেলেও সাংবাদিকদের দেখতে পেয়ে তারাও সরে পড়েন।
বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে উত্তরা পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ নূরে আলম সিদ্দিকীকে একাধিকবার ফোন করলেও তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এদিকে, গতকাল রাত ১০টা নাগাদ সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জানা যায়, টার্গেট সোয়েটার ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ এর মালিক আজহার উদ্দিন শ্রমিকদের বেতন না দিয়ে বরং উত্তরার ওই প্রধান কার্যালয় থেকে সবাইকে মারের ভয় দেখিয়ে চলে যাওয়ার হুমকি দেয়। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত, বকেয়া বেতনের দাবীতে অবস্থানরত মাসুদ রানা নামের এক শ্রমিক জানায়, ‘আমরা সকাল থেকে এখন পর্যন্ত হেড অফিসের সামনেই আছি। কোম্পানীর মালিক বেতন পরিশোধের কোন কথা না বলে বরং আমাদেরকে নানারকম ভয়-ভীতি ও হুমকি দিচ্ছে। কোম্পানীর মালিক বলছে যে আমাদেরকে বেতন দিবেনা।’