চাটমোহরে স্থানীয় মানবাধিকার সংগ্রামীদের নিজস্ব অর্থায়নে অস্ত্রপচারের মাধ্যমে পিত্তথলির পাথর অপসারন


» উত্তরা নিউজ | অনলাইন রিপোর্ট | সর্বশেষ আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ - ০৯:১৯:০৬ অপরাহ্ন

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন BHRC পাবনা চাটমোহর উপজেলা ও পৌর শাখা’র ৯১ জন মানবাধিকার সংগ্রামী প্রতিদিন ১ কাপ করে চা-কম পান করে সঞ্চিত নিজস্ব অর্থায়নে গতকাল ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রি: বৃহস্পতিবার দুপুরে অপারেশনের মাধ্যমে উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের ভাদড়া বাইপাস এলাকার বাসিন্দা মৃত আবুল হোসেনের ছেলে হতদরিদ্র মো: আবুল কাশেম-এর পিত্তথলি থেকে বৃহৎ আকৃতির একটি পাথর অপসারন করা হয়েছে।

চাটমোহর পৌরসদরের ভাদুনগরস্থ বন্ধন ক্লিনিকে সার্জন ডা: মাজেদুল ইসলাম এবং ডা: আসিফ সরকার রোগী’র দেহে সফল অস্ত্রপচার করেন। অপারেশন থিয়েটারে সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন আলহাজ্ব ডা: এম. এ. মজিদ (সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন চাটমোহর উপজেলা শাখা)। রোগী মো: আবুল কাশেম দীর্ঘদিন চাটমোহর পৌর সদরের মির্জা মার্কেটে নৈশপ্রহরী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন।

রোগী’র লিখিত আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে স্থানীয় মানবাধিকার সংগ্রামীদের পক্ষে BHRC চাটমোহর উপজেলা শাখার সভাপতি সাংবাদিক কেএম বেলাল হোসেন স্বপন, সাধারণ সম্পাদক মো: রবিউল করিম রবি এবং পৌর শাখার সভাপতি নূর-ই হাসান খান ময়না, সহ-সভাপতি অজয় কুমার কুন্ডু সরেজমিন তদন্ত সাপেক্ষে অসুস্থ্য আবুল কাশেম-কে চিকিৎসা সহায়তা প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

আজ ২০ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বিকেল ৫টায় স্থানীয় মানবাধিকার সংগ্রামীগণ বন্ধন ক্লিনিকে উপস্থিত হয়ে রোগী আবুল কাশেম-এর সাথে সাক্ষাত করেন। মানবাধিকার সংগ্রামীরা রোগীর শরীরিক পরিস্থিতির খোঁজখবর নেন এবং সুস্থতা কামনা করেন। এ সময় BHRC চাটমোহর উপজেলা শাখা’র সহ-সভাপতি ডা: এম. এ. মজিদ, আলহাজ্ব আব্দুর রউফ, সাধারণ সম্পাদক মো: রবিউল করিম রবি, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: হাসিনুর রহমান, যুগ্ম প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক মো: কামরুল ইসলাম। এবং পৌর শাখা’র সভাপতি পৌর কাউন্সিলর মো: নুর-ই-হাসান খান ময়না, সহ-সভাপতি আলহাজ্ব রেজাউল করিম ঠান্টু, খন্দকার হোসনে আরা হাসি, মো: ফজলুল হক, সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) বিশ্বজিৎ জোয়াদ্দার মিঠুন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সঞ্জয় কুমার দাস মানিক উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন BHRC চাটমোহর উপজেলা ও পৌর শাখা’র মানবাধিকার সংগ্রামীগণ প্রতিদিন এক কাপ চা’কমপান করে মাসে একশ’ টাকা অনুদানে একটি তহবিল গঠন করতে সক্ষম হয়েছেন। ২০১৬ খ্রিষ্টাব্দ থেকে সংগৃহিত তহবিলের অর্থায়নে প্রতিমাসে একজন করে দু:স্থ্য, অসহায় মানুষকে চিকিৎসা সহায়তা, দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষা সহায়তা প্রদান সহ আর্ত মানবতার সেবায় বিভিন্ন কার্যক্রম অব্যহত রেখেছে।

উত্তরা নিউজ/ পাবনা প্রতিনিধি