ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এ নিহত পরিবারদের ২ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ


» উত্তরা নিউজ ডেস্ক জি.এম.টি | | সর্বশেষ আপডেট: ১৪ নভেম্বর ২০১৯ - ১১:৩৭:১২ পূর্বাহ্ন

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাম্প্রতিক প্রাকৃতিক দুর্যোগ ‘বুলবুল’ ঘূর্ণিঝড়ে মৃতদের পরিবারকে দুই লাখ  টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। তিনি আজ (বুধবার) উত্তর ২৪ পরগণা জেলার বসিরহাটে দুর্গত এলাকা আকাশপথে ঘুরে দেখার পরে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে ওই ঘোষণা করেন।

মমতা এদিন বলেন, ‘গোটা রাজ্যে প্রায় ১৫ লাখ হেক্টর জমিতে ফসল নষ্ট হয়েছে। আকাশ পথে দেখলাম অনেক জায়গায় এখনও জল জমে রয়েছে। বাঁধ ভেঙে জলও  ঢুকেছে।’ সব মিলিয়ে বুলবুলের ক্ষয়ক্ষতি ৫০ হাজার কোটি টাকা হতে পারে বলে মুখ্যমন্ত্রী মন্তব্য করেছেন।

তিনি বলেন, ‘গোটা এলাকায় ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বসিরহাটে বুলবুলের তাণ্ডবে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের পরিবারকে দুই লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণের চেক দেওয়া হবে।’

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাব সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ভয়াবহ পরিস্থিতি। কোলকাতা থেকে বোঝা যায় না কতটা ক্ষতি হয়েছে।’

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন নদীবাঁধ ভাঙা বন্ধ করতে সেচ দফতরের কর্মকর্তাদের ম্যানগ্রোভ অরণ্য বাড়াতে নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে সুন্দরবনে ভাঙন রুখতে বন দফতর যে বিশেষ ধরণের ঘাস ব্যবহার করছে, সেই ঘাস ব্যবহার করার পরামর্শ দেন তিনি। মমতা সেচ দফতরের কর্মকর্তাকে বলেন, ‘বাঁধ কংক্রিট করে রোখা যাবে না। প্রতি বছর বাঁধ ভাঙবে। সেজন্য ম্যানগ্রোভ বাড়ান।’

মুখ্যমন্ত্রী এদিন জেলা কর্মকর্তাদের পানিমগ্ন ও প্লাবিত এলাকায় মেডিক্যাল টিম এবং পর্যাপ্ত পরিমাণে খাবার পানি পাঠানোর নির্দেশ দেন। এছাড়া অবিলম্বে প্রত্যেক পরিবার পিছু ১২ কেজি চাল, শিশুখাদ্য ও জ্বালানি হিসাবে ৫ লিটার কেরোসিন তেল বিতরণ করার নির্দেশ দেন।

পার্সটুডে/