গুলশানের সেই স্পা সেন্টারের মালিক-ম্যানেজার কারাগারে


» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ - ০১:৩৬:৪৫ অপরাহ্ন

রাজধানী গুলশানের নাভানা টাওয়ারের ‘হিজামা থেরাপি সেন্টার অ্যান্ড বডি ম্যাসাজ’ নামের স্পা সেন্টারের মালিক রাজিয়া ও ম্যানেজার ইমরানের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

শুক্রবার (২৫ সেপ্টম্বর) একদিনের রিমান্ড শেষে তাদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। অপর দিকে আসামিদের আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মিল্লাত হোসেন জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) গ্রেফতার ১০ জনকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য রাজিয়া ও ইমরানের বিরুদ্ধে পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে বিচারক একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

অপরদিকে বাকি আটজনকে মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। এ সময় তাদের আইনজীবীরা জামিন চেয়ে আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক আসামিদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

মঙ্গলবার রাতে গুলশান-১ এর নাভানা টাওয়ারের লেভেল ২২/এ অভিযান চালিয়ে পাঁচ নারী ও পাঁচ পুরুষকে আটক করে পুলিশ।

গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল হাসান বলেন, ‘থেরাপি সেন্টারের আড়ালে দীর্ঘদিন ধরে সেখানে ঢাকার বিভিন্ন স্থান থেকে উঠতি বয়সের তরুণী ও নারীদের একত্রিত করে দেহ ব্যবসা পরিচালনা, যৌন শোষণ ও নিপীড়নমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল স্পা সেন্টারটি।’

তিনি বলেন, ‘অভিযানে অসামাজিক কার্যকলাপ ও পতিতাবৃত্তির সময় ১০ জনকে হাতেনাতে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা তাদের নাম-ঠিকানা প্রকাশ করেন এবং পতিতাবৃত্তির কথা স্বীকার করেন।