গর্ভাবস্থায় কফি খেলে হতে পারে বিপদ


» উত্তরা নিউজ | অনলাইন রিপোর্ট | সর্বশেষ আপডেট: ০৭ অগাস্ট ২০১৯ - ০৭:১৪:১৩ পূর্বাহ্ন

দিনে অন্তত এককাপ কফি না খেলে দিনটিই অসম্পূর্ণ লাগে অনেকের। আড্ডা জমাতে বলুন কিংবা স্ট্রেস কমাতে- কফি জনপ্রিয়তা বাড়ছেই দিনদিন। কফি খেলে নানা উপকারও মেলে। এককাপ গরম কফি আপনার সমস্ত দিনের ক্লান্তি নিমিষেই কাটিয়ে দিতে পারে। কিন্তু আপনি যদি সন্তানসম্ভবা হন তবে কফির থেকে একটু দূরে থাকতে হবে।

গবেষণা বলছে, দিনে দু-কাপ কফিও নাকি সন্তানের শরীরের ক্ষতি করতে পারে। বিশেষ করে সন্তানের লিভার তৈরির ক্ষেত্রে এবং লিভারের অসুখের সম্ভাবনা বাড়িয়ে তোলে।

ইঁদুরের উপর করা একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, অন্তঃসত্ত্বা ইঁদুরকে ক্যাফিন দেওয়ার জেরে তার যে বাচ্চাটি হয়েছে তা অত্যন্ত কম ওজন, স্ট্রেস হরমোন লেভেলের পরিমাণ মারাত্মক ও লিভারের অসুখ হওয়ার সম্ভাবনা প্রচুর বেশি রয়েছে।

জার্নাল অফ এন্ডোক্রিনোলজিতে প্রকাশিত হয়েছে দু-তিন কাপ কফির ফলে সন্তানসম্ভবার শরীরে যে পরিমাণ ক্যাফিন মজুত হয় তাতে গর্ভস্থ সন্তানের হরমোন লেভেল ও লিভারের ঠিক মতো গ্রোথ হয় না।

দিল্লির মেডিকোভার ফার্টিলিটির চিকিৎসক শ্বেতা গুপ্তার মতে, ‘প্রেগন্যান্সির সময় ক্ষুধা পাওয়া ও মুড সুইং হওয়া অত্যন্ত সাধারণ বিষয়। অনেকে কফি খেয়ে সেটি ঠিক করার চেষ্টা করেন। তবে তা শরীরে বিরূপ প্রতিক্রিয়া ফেলে।’

একইসঙ্গে ক্যাফিনের পরিমাণ শরীরে বাড়লে অন্তঃসত্ত্বাদের পর্যাপ্ত ঘুমেরও অভাব ঘটে।