খুলনা মেডিক্যালে নমুনার ‘স্তূপ’ বড় হচ্ছে


» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ২৪ জুন ২০২০ - ১০:২৬:৩৯ পূর্বাহ্ন

খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের সামনে বেশ ভিড়। সবাই এসেছে করোনা পরীক্ষার নমুনা জমা দিতে। কিন্তু সবার নমুনা নেওয়া হচ্ছে না।

এদের একজন মধ্যবয়সী আবু বকর সিদ্দিকী। ডুমুরিয়ার শোভনা এলাকা থেকে আসা এই ব্যক্তি গতকাল বলেন, ‘পরীক্ষার জন্য নির্দিষ্ট ফরম পূরণ করেছি। কিন্তু আমার নমুনা নেওয়া হয়নি। বলা হচ্ছে, আমার নাকি লক্ষণ নেই। যত্তসব টালবাহানা। এই নিয়ে দুই দিন এলাম। আর কতবার আসব!’

হাসপাতালের একাধিক চিকিৎসক ও চিকিৎসাকর্মী জানান, প্রতিদিন কয়েক শ মানুষ পরীক্ষা করাতে আসে। নমুনা নেওয়া হয় গড়ে ১০০ জনের। আবার ‘ভিআইপি’ অনেকের নমুনাও নিতে হয়। যে মেশিনটি এখানে বসানো হয়েছে, তা বেশ পুরনো সংস্করণের। ২০০ নমুনা পরীক্ষা করা যায় না। এখনো প্রায় এক হাজার নমুনা জমা আছে। প্রতিদিন পুরনো নমুনার কিছু কিছু পরীক্ষা করা হচ্ছে। আর নতুন নমুনা তো আছেই। আবার রয়েছে কিট সংকট।

কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ বলেন, ‘নমুনা পরীক্ষার জন্যে রোগীর চাপ আছে। আমরা একটু যাচাই-বাছাই করে নমুনা সংগ্রহ করছি। যাদের শুধু জ্বর ছাড়া অন্য উপসর্গ নেই, আমরা তাদের নমুনা নিচ্ছি না।’

এদিকে খুলনায় সংক্রমণের হার বাড়ছে। সংক্রমণ ঠেকাতে খুলনা মহানগরীর ১৭ ও ২৪ নম্বর ওয়ার্ড এবং রূপসা উপজেলার আইচগাতি ইউনিয়নকে ২৫ জুন রাত ১২টা থেকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।