কাশ্মীর: সর্বনাশের ঝুঁকি, তবুও বাকি বিশ্বের অনীহা


» উত্তরা নিউজ টোয়েন্টিফর, ডেস্ক রিপোর্ট | | সর্বশেষ আপডেট: ১৯ অক্টোবর ২০১৯ - ১১:২৬:০৩ পূর্বাহ্ন

ভারত শাসিত কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর আড়াই মাস হতে চললো সেখানকার লাখ লাখ মানুষ কার্যত অবরুদ্ধ জীবন যাপন করছেন।

জীবনযাপনের ওপর নজিরবিহীন বিধিনিষেধ আর নিরাপত্তা নজরদারিতে ক্রোধে ফুঁসছে কাশ্মীর উপত্যকা। একইসাথে ক্রুদ্ধ ভারতের পারমাণবিক শক্তিধর প্রতিবেশী পাকিস্তান।

গতমাসে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে তার ৫০ মিনিটের ভাষণে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বিশ্ব নেতাদের বলার চেষ্টা করেছেন কাশ্মীরে ভারতের সর্বশেষ বিতর্কিত ভূমিকায় শুধু যে কাশ্মীরিরাই বিপর্যস্ত হচ্ছে তাই নয়, তা পুরো বিশ্বকেই হুমকিতে ফেলেছে। তিনি বলেছেন, দক্ষিণ এশিয়ায় পারমাণবিক যুদ্ধের ঝুঁকি তৈরি হয়েছে।

ইমরান খান যেটা বলার চেষ্টা করেছেন তা হলো – কাশ্মীরে নিরাপত্তা বিধিনিষেধ একটু শিথিল হলেই ক্ষোভে ফেটে পড়বে কাশ্মীরিরা। ভারত সবসময়কার মত পাকিস্তানকে দায়ী করবে, এবং তাতে দুই দেশের সংঘর্ষ বেঁধে যাওয়া খুবই সম্ভব।

ইমরান খানের কথা ছিল এরকম- আয়তনে সাত গুণ বড় একটি প্রতিপক্ষের সামনে দাঁড়িয়ে পাকিস্তানের সামনে বিকল্প যদি হয় – ‘হয় আত্মসমর্পণ করো, না হয় লড়ো’, তখন পাকিস্তানের সামনে পারমাণবিক শক্তি ব্যবহারের পথ ছাড়া হয়তো আর কোনো উপায় থাকবে না।

 

সূত্র- বিবিসি বাংলা