কালীগঞ্জে কেবিনেটের ভিতর থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ০২ জানুয়ারি ২০২০ - ০৪:২৫:০৯ অপরাহ্ন

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি : গাজীপুরের কালীগঞ্জে চার বছরের শিশু মোঃ আদিলকে হত্যা করে লাশ কেবিনেটের ভিতরে রেখে তালা বদ্ধ করে রাখে মাদ্রাসার শিক্ষক। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে উপজেলার জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নের মরাশ জামিয়াতুল মাদ্রাসা ও এতিমখানায়। নিহত আদিল ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার ধসালিয়া গ্রামের ওই মাদ্রাসারই প্রধান শিক্ষক মুফতি জোবায়ের আহমেদ এর ছেলে।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ.কে.এম মিজানুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অভিযুক্ত দুই শিক্ষক জোনায়েত আহমেদ ও খাইরুল ইসলামকে থানায় নেয়া হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার বিকালে আদিল মাদ্রাসার পাশেই মাঠে খেলতে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরে ছেলেকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে মসজিদের মাইকে ঘোষণা করা হয়। পরে গ্রামবাসী এসে মাদ্রাসার পুকুরসহ বিভিন্ন জায়গায় খোজাঁখুজি করে না পেয়ে মাদ্রাসার কক্ষে খুজঁতে থাকে। খোজাঁখুজির এক পর্যায়ে মাদ্রাসার কর্মরত দুই শিক্ষকের চলাফেরা দেখে স্থানীয়দের মনে সন্দেহ হয়। পরে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত ওই দুই শিক্ষক ঘটনার কথা স্বীকার করে। পরে তাদের তথ্যের ভিত্তিতে অত্র মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক জোনায়েদ আহমেদ এর কক্ষে থাকা কেবিনেট থেকে ওই শিশুর মৃত দেহ উদ্ধার করে স্থানীয় লোকজন। পরে লোকজন থানা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে কালিগঞ্জ-কাপাসিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পঙ্কজ দত্ত, কালিগঞ্জ থানার ওসি এ.কে.এম মিজানুল হক, ওসি অপারেশন মোজাহিদুল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন নিহতের প্রাথমিক সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে লাশের ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। হত্যায় অভিযুক্ত আসামিদের বাড়ী হাবিগঞ্জ জেলার রাখাইন উপজেলার তেগুরিয়া গ্রামের মৃত ওয়াহাব আলীর ছেলে জোনায়েত আহমেদ (৩০), অপরজন একই এলাকার জফু মিয়ার ছেলে খাইরুল ইসলাম (২৫)।