উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


কার্বন কাগজে মুড়িয়ে সোনা পাচারের চেষ্টা; শাহজালালে আটক যাত্রী







এস,এম,মনির হোসেন জীবন: ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১০ তোলা ওজনের ২ পিস সোনার বার ও ২৯৮ গ্রাম স্বর্ণলংকার সহ মো: খলিলুর রহমান নামে এক যাত্রীকে আটক করেছে ঢাকা কাস্টম হাউজের কর্মকর্তারা। উদ্বারকৃত সোনার বাজার মূল্য প্রায় ১৫ লাখ টাকা । পরবর্তীতে স্বর্ণগুলো ডিএম করে ঢাকা কাস্টম হাউজ এর শুল্ক গুদামে জমা করা হয়েছে।
আজ বুধবার দুপুরে ঢাকা শাহজালাল বিমানবন্দরে গ্রিনচ্যানেল বি-শিফট স্ক্যানিং এলাকায় এঘটনা ঘটে।
ঢাকা কাস্টম হাউসের সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ জাকারিয়া আজ বুধবার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানায়, আজ বুধবার দুপুরে সিঙ্গাপুর থেকে একটি বিমানে করে ঢাকা শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌছান যাত্রী খলিলুর রহমান। সে বিমান থেকে নেমে ঘোষণা ছাড়া গ্রিনচ্যানেল অতিক্রম করতে গেলে ঢাকা কাস্টমস এর নিয়মিত বি-শিফট এর কর্মকর্তারা তার সাথে থাকা মালামাল মেশিনে স্ক্যানিং করেন। স্ক্যানিং করার সময় অভিনব কৌশলে আনা সোনার বারের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। পরে কাউন্টারে এনে তল্লাশি করে তার ভেতরে ১০০ গ্রাম ওজনের ২পিস সোনার বার এবং ৯৮ গ্রাম অলংকারসহ মোট ২৯৮ গ্রাম সোনা উদ্ধার করা হয়৷ যার বাজার মূল্য প্রায় ১৫ লাখ টাকা। স্বর্ণগুলো ডিএম করে ঢাকা কাস্টম হাউজ এর শুল্ক গুদামে জমা করা হয়েছে।
কাস্টম হাউজের কর্মকর্তারা আজ আরো জানান, আটককৃত যাত্রী খলিলুর রহমান সিঙ্গাপুরে দীর্ঘ প্রায় ১৩ থেকে ১৪ বছর ধরে চাকরি করেন। তিনি এক বছর তিন মাস পর দেশে আসেন। ছোট ছোট শোপিস এর মধ্যে সোনার বারগুলো কার্বন কাগজে মুড়িয়ে এডিসিভ এর মধ্যে রাখা হয় যাতে স্ক্যানিংয়ে বুঝা না যায়।