‘কাউন্সিলর নাঈমের আগ্রাসন থেকে বাঁচতে স্থানীয়দের মানববন্ধন’


» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ১৩ নভেম্বর ২০১৯ - ০৩:১৪:৫২ অপরাহ্ন

স্টাফ রিপোর্টার: দক্ষিণখান থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও ডিএনসিসি ৪৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আনিসুর রহমান নাঈমের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছে রাজধানীর বিমানবন্দরস্থ বাবুস সালাম ওয়াক্ফ এস্টেট (মসজিদ মাদ্রাসা মার্কেট) এর ভুক্তভোগী দোকান মালিকগণ ও জন সাধারণ। আজ ১৩ নভেম্বর (বুধবার) সকাল ১১টায় বিমানবন্দর গোলচত্ত্বরে উক্ত মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় মানববন্ধনটিতে অংশ নেয় কাউন্সিলর নাঈমের চাঁদাবাজি ও অত্যাচারে অতিষ্ঠ দোকান মালিকগণ ও ভুক্তভোগী একাধিক পরিবারের প্রায় অর্ধ-শতাধিক মানুষ।

মানববন্ধনে ভুক্তভোগীরা দাবী করেন, ৪৯নং ওয়ার্ডের সদ্য নির্বাচিত কাউন্সিলর আনিসুর রহমান নাঈম সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে তোলার মাধ্যমে একের পর এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে আসছে। ফলে সাধারণ মানুষদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়, মসজিদ-মাদ্রাসার জায়গা দখল, অপরের জমি দখল, জাল-জালিয়াতির আশ্রয় গ্রহণসহ ভুক্তভোগীদের উপর হামলা ও নির্যাতনের মাধ্যমে ডিএনসিসি ৪৯নং ওয়ার্ডে একের পর এক ত্রাসের রাজত্ব গড়ে তুলেছেন তিনি।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ইতিপূর্বে নাঈম গং ও তার পরিবারের অত্যাচার ও অবৈধ কার্যকলাপে অতিষ্ঠ হয়ে এলাকা ছেড়েছে অনেকেই। তবে এসব বিষয়ে ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় নেতাদের নিকট অভিযোগ জানিয়েও কোন প্রতিকার পায়নি ভুক্তভোগীরা। বরং স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও কাউন্সিলর হওয়ার সুবাদে দিনের পর দিন নাঈমের অন্যায়-অত্যাচার, স্বেচ্ছাচারিতা, মানুষের উপর জুলুম-নিপীড়ন, ভূমি দখল, হামলা ও হুমকি পূর্বের সকল বারের সীমা ছাড়িয়ে গেছে।

ছবি: মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীদের একাংশ

এছাড়াও উক্ত মানববন্ধনে কাউন্সিলর নাঈমের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিমানবন্দরস্থ বাবুস সালাম ওয়াকফ্ এস্টেট মসজিদ মার্কেট কমপ্লেক্সে অবৈধভাবে দোকান ভাড়া দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা চাঁদাবাজির অভিযোগ করেন মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তি ও পরিবারের সদস্যরা। আর এসব অপকর্মের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুললেই কাউন্সিলর নাঈমের গড়া সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ করেন বক্তারা।

অপরদিকে, মানবন্ধনের বিষয়ে জানতে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ও ৪৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনিসুর রহমান নাঈমকে একাধিকবার ফোন করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য যে, ইতিপূর্বে কাউন্সিলর নাঈমের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম, জবর-দখল, মারধর ও অবৈধ সম্পত্তি গড়ে তোলা নিয়ে দেশের একাধিক স্বনাম গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। আবার এসব সংবাদকে নাটক অভিহিত করে গত ১১ নভেম্বর, ২০১৯ তারিখে দক্ষিণখানস্থ নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনও করেছেন কাউন্সিলর নাঈম। কাউন্সিলর নাঈমের সংবাদ সম্মেলনের ঠিক দুদিন পরই অনুষ্ঠিত হলো উক্ত মানববন্ধন।

উত্তরা নিউজ/জি.এম.টি