করোনার ভ্যাকসিন ইঁদুরে প্রয়োগ; ফলাফল পজেটিভ


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ১৪ মে ২০২০ - ১০:১২:০৫ পূর্বাহ্ন

ব্রিটিশ এবং ভিয়েতনামি বিজ্ঞানীদের তৈরি করোনাভাইরাসের একটি ভ্যাকসিন গবেষণারে ৫০টি ইঁদুরের ওপর সফল প্রমাণিত হয়েছে।

ভিয়েতনামের ভ্যাকসিন প্রকল্প এবং ভ্যাবিওটেক সংস্থার প্রধান ডা. ডু টুয়ান ডাট বলেছেন, ‘এটি ভিয়েতনামে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন তৈরির প্রাথমিক সাফল্য।’

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ভ্যাবিওটেক এবং যুক্তরাজ্যের ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীদের সহযোগিতায় এই ভ্যাকসিন তৈরি করা হয়েছে।

ডা. ডাট জানান, পরীক্ষার সময় ইঁদুরগুলোর ওপর অ্যান্টিজেনের একাধিক ডোজসহ ভ্যাকসিনটির কিছু উপাদানের ৩ থেকে ১০ মাইক্রোগ্রামের একটি বা দুটি ডোজ দেওয়া হয়। ১০ দিন পর ৫০টি ইঁদুরের প্রতিটিই সুস্থ রয়েছে এবং বর্তমানে ইমিউন রেসপন্স পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

এই ট্রায়ালের প্রাথমিক মূল্যায়নের জন্য খুব শিগগির বিজ্ঞানী দলটি হ্যানয়ের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হাইজিন অ্যান্ড এপিডেমিওলজিতে ইঁদুরের রক্তের নমুনাগুলো পাঠাবেন। এছাড়া আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে আরেকটি ট্রায়াল পরিচালনা করবেন বলে জানিয়েছেন।

এই ট্রায়াল যদি সফল প্রমাণিত হয় তাহলে বিজ্ঞানীরা তাদের কাজকে আরো এগিয়ে নেওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর কাছ থেকে তহবিল সংগ্রহ করবেন।

ডা. ডাট বলেন, ‘এই ভ্যাকসিনে কোভিড-১৯ অ্যান্টিজেন বহনকারী একটি স্ট্রিইন রয়েছে যা গবেষকরা ল্যাবে তৈরি করেছেন এবং আশাব্যঞ্জক ফলাফল সহ অন্যান্য প্রাণীর উপর পরীক্ষা করা হয়েছে।’

তাঁর মতে, ‘সুতরাং আশা করা যুক্তিসঙ্গত যে, ইঁদুরকে দেওয়া ভ্যাকসিনটি নিরাপদ।’

সংস্থাটির প্রত্যাশা, মানুষের জন্য কোভিড-১৯ রোগের এই ভ্যাকসিনটি উপযোগী করতে ১২ থেকে ১৮ মাসের মতো সময় লাগবে।

উল্লেখ্য, মহামারি কোভিড-১৯ রোগের এখন পর্যন্ত কোনো স্বীকৃতি ভ্যাকসিন বা ওষুধ নেই। বিশ্বজুড়ে প্রায় ১৫০টি ভ্যাকসিন প্রকল্প চলছে বলে জানা গেছে।