Avatar এরশাদ হোসেন বিজয়
Reporter


কবিতা- নারী,তুমি কি?






          – মাহমুদ তালুকদার

(বীরাঙ্গনা নূসরাতকে নিবেদিত)

          ঝিনুকের মাঝে মুক্তোদানা,
আমি জানি নারীর প্রেম মোহনা।
খোদার প্রথম সৃজন তুমি আদমের শক্তি,
আমি শাক্ত, তুমি শক্তির উৎস তোমাতেই ভক্তি।
তোমাতে আমার সৃজন-পালন, তুমি গর্ভধারিণী,
প্রেম বাহুডোরে আবদ্ধ তুমি যে সহধর্মিণী।
সোহাগে ভরা মমতায় ঘেরা আমার সহোদরা ,
কলিজা হতে সৃজিত তনয়া আমার বুক জুড়া।
কেমনে করিবো বিভাজন বলো তুমি যে অদ্বিতীয়া,
অগ্নি রূপি, প্রেমের খনি, সংসারে অনসূয়া।
ফেরাউন শাহীর সংসারে তুমি ছিলে যে যুধিষ্ঠির ,
আইয়ুব নবীর প্রেমাঙ্গিণী নারীর উঁচু শীর।
খোদার প্রেয়সী রাবেয়া তাপসী ছিলে যে তুমি জনা,
শাহী মসনদের উচ্চাসনে তুমি রাজিয়া সুলতানা ।
দুস্য ফিরিঙ্গির তাঁবু কাঁপানো ঝাঁসির রাণীমাতা ,
বর্ণবাদী কামুকের ত্রাস, ফুলনদেবী ত্রাতা ।
অন্ধজনের নয়নের আলো তুমি যে হেলেন কিলার
নতুন ধরণী পেলো যে ওরা ইতিহাসটা কি ভুলার?
তুমি বেগম রোকেয়া জ্ঞানের মশাল আধার গুহার আলো
দিকভ্রান্ত কুনোব্যাঙ সব পথের দিশা পেলো।
সংসারের ঘানি কত যুগ জানি, জানিনা তব ব্যাথা ,
কাল- কালান্তর জমে আছে সাথে না বলা কত কথা।
জন্মদাতা-দাত্রীর সোহাগ ছিন্ন করিয়া চল,
নতুন ভবে নিজেরে সপে ময়ূরী পেখম খোল।
তবু কেন হায়! নিতে হবে দায় সমাজের অপবোঝা ?
তুমিতো নারী, শক্তি আধারী তুমিতো নও খোঁজা ।
হোক কামুকের চোখ শামুকের মুখ- আধার জগতবাসী ,
কেন বলো ওহে চিৎকারে ওদের চাই শুধু ফাঁসি ফাঁসি?
শক্তি আধারী নারী তবে মনে নেই কি শক্তি বীজ?
তবে পড় কপালে অঞ্জন ফোঁটা ঝুলাও গলায় তাবিজ।