ওয়াশিংটনে এবিএফএস’র জমজমাট ’নিউ ইয়ার ২০২০ সেলিব্রেশন’


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ০২ জানুয়ারি ২০২০ - ০৫:২৪:০৯ অপরাহ্ন

ওয়াশিংটন: নিউ ইয়ার ২০২০ বরণ করে নিল বৃহত্তর ওয়াশিংটন প্রবাসী বাংলাদেশীরা। ঘরে ঘরে পাড়ায় পাড়ায় ’নিউ ইয়ার ২০২০ কে বরণ করে নেয়ার জন্য আয়োজন করা হয় নানা ’নিউ ইয়ার ২০২০ সেলিব্রেশন’ অনুষ্ঠানের। নিউ ইয়ার ২০২০ কে বরণ করার জন্য ওয়াশিংটনের বৃহত্তম সংগঠন এবং ২০২১ সালে ওয়াশিংটনে ৩৫তম ফোবানা সম্মেলনের আয়োজক সংগঠন আমেরিকান বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটির (এবিএফএস) আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় নিউ ইয়ার ইভ পার্টি।
ভার্জিনিয়ার ম্যানাসাস শহরের ওয়েন্ডহ্যাম গার্ডেন হোটেল বলরুমে অনুষ্ঠিত এই নিউ ইয়ার ইভ পার্টিতে ৩৫তম ফোবানা সম্মেলনের কর্তাব্যক্তিরা সহ ওয়াশিংটনের সর্বস্তরের প্রবাসীরা অংশগ্রহন করে। ৩৫তম ফোবানা সম্মেলনের সদস্য সচিব শিব্বীর আহমেদ’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে শিশু শিল্পীদের নাচগান পরিবেশিত হয়। এই পর্বে অংশগ্রহন করে মায়া, লাইবা, অয়ন, ক্যামিলা সহ অন্যান্য শিশু শিল্পীবৃন্দ।
এরপর ৩৫তম ফোবানা সম্মেলন স্বাগতিক কমিটির সভাপতি ইনারা ইসলাম, কনভেনার জি আই রাসেল, প্রধান সমন্বয়ক এজেএম হোসেন, সাংস্কৃতিক কমিটির চেয়ারম্যান আকতার হোসাইন, সহ সভাপতি দস্তগীর জাহাঙ্গীর, ইনাম হক, মাসুদুর রহমান, শামসুদ্দীন মাহমুদ, কো-কনভেনার মজনু মিয়া, তানিয়া মিলি, মজিবুর রহমান খান, আনোয়ার হোসেন, কোর্ডিনেটর দেওয়ান আলী বিজয়, প্রচার কমিটির চেয়ারম্যান মীর রফিকুল ইসলাম, সহ মাসুমা মেরি, নাসরিন রহমান, পলি হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, আলতাফ হোসেন, ফাহমিদা হোসেন, স্যাম রিয়া, মমতা আবেদীন, জেবা রাসেল, আলেয়া হোসেন, তানভীর আহমেদ, তৈয়বুর রহমান, মোহাম্মদ হোসেন, সাংস্কৃতিক ওভারসিজ কমিটির চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম কামাল, উপদেষ্টা মোহাম্মদ করিম, আবেদীন সাইদ, কনভেনশন ইমার্জেন্সী মেডিকেল কমিটির ডা. মোহাম্মদ খান, ডা. মাননুল ওহাব, ট্রেজারার ড. ফায়জুল ইসলাম সহ আরো অনেকে।
অনুষ্ঠানে প্রধান আকর্ষন হিসাবে ’নিউ ইয়ার ২০২০ সেলিব্রেশন’ অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন যুক্তরাষ্ট্রের তিন জনপ্রিয় শিল্পী শীলা আজিজ, কামারুজ্জামান বকুল ও রুখসানা মির্জা। অনুষ্ঠানের শব্দব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করেন ওয়াশিংটনের জনপ্রিয় সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার জামিল খান।
রাত ঠিক বারোটায় স্ক্রীনে কাউন্ট ডাউনের মাধ্যমে নিউ ইয়ার ২০২০ বরণ করে নেয় অনুষ্ঠানে অংশগ্রহনকারীরা। একে অন্যের সাথে আনন্দ আলঙ্গীনে মেতে উঠে সবাই। একই সাথে রুখসানা মির্জার গানের তালেতালে নেচে গেয়ে রাত প্রায় ২ ঘটিকা পর্যন্ত আনন্দ উৎসবে মেতে থাকে সবাই।