মোহাম্মদ তারেকউজ্জামান খান মোহাম্মদ তারেকউজ্জামান খান
সম্পাদক ও প্রকাশক


‘এনআরসি নিয়ে আমাদের সতর্ক থাকা প্রয়োজন’






ভারতের সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে শনিবার আসামের নাগরিকদের চূড়ান্ত তালিকা (এনআরসি) প্রকাশ করা হয়েছে।

তালিকায় ৩ কোটি ১১ লাখ ২১ হাজার ৪ জনের নাম রয়েছে। বাদ পড়েছে ১৯ লাখ ৬ হাজার ৬৫৭ জনের নাম। তালিকা প্রকাশের পর আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়াল জানিয়েছেন, যাদের নাম বাদ পড়েছে তাদের উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ নেই। আগামী ১২০ দিনের মধ্যে ট্রাইব্যুনালে আবেদন জানাতে পারবেন তারা।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শংকর বলেছেন, এনআরসি তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এটা নিয়ে আমাদের চিন্তার কোনো কারণ নেই। এটা যেহেতু তাদের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার, তারা নিজেরাই সমাধান করবে। আসামের নাগরিকদের চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন যে ১৯ লাখ মানুষ, তাদের মধ্যে ১১ লাখই হিন্দু জনগণ, তাদের হয়তো নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। তেমনটাই শোনা যাচ্ছে। আর বাকি যে ৮ লাখ মানুষ থাকবেন তাদের হয়তো ওয়ার্ক পারমিট দেওয়া হবে কিন্তু তাদের ভোটাধিকার দেওয়া হবে না হয়তো।

এমতাবস্থায় তাদের যে আইন আছে, তাদের যে সুপ্রিম কোর্ট আছে এবং তাদের যে সিভিল সোসাইটি আছে, তারা বিষয়টি মানবে কি/না আমরা জানি না। তবে এনআরসি নিয়ে আমাদের সতর্ক থাকা প্রয়োজন। তা ব্যতীত এখন পর্যন্ত বিষয়টি সম্পূর্ণ ভারতের নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রয়েছে। সুতরাং এ বিষয়টি নিয়ে আমাদের খুব বেশি কথা বলার সুযোগ নেই। তারাই এটার সমাধান করবে।

এছাড়া ভারত-বাংলাদেশের বিভিন্ন দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে যত আলোচনা হয়েছে, সেখানে কোথাও এ বিষয়টি নিয়ে কখনও কথা হয়নি। সুতরাং এ বিষয়টি নিয়ে আমাদের খুব বেশি চিন্তার কিছু আছে বলে মনে হয় না। এ বিষয়টি নিয়ে ভারতবিরোধী জনগণ বাংলাদেশে আছে, তারা যেন কোনো রকম ইস্যু সৃষ্টি না করতে পারে সেদিকেও আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।