এইড ফর মেন কর্তৃক আন্তর্জাতিক পুরুষ দিবস উদযাপন


» শিপার মাহমুদ (জুম্মান) | স্টাফ রিপোর্টার, উত্তরা নিউজ | সর্বশেষ আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০১৯ - ১২:৩৪:২২ অপরাহ্ন

১৯ শে নভেম্বর আন্তর্জাতিক পুরুষ দিবস। বিশ্বের ৭০টিরও বেশী দেশে নানা আয়োজনে দিবসটি পালিত হচ্ছে । বাংলাদেশেও আন্তর্জাতিক পুরুষ দিবস উপলক্ষে এইড ফর মেন ফাউন্ডেশনের আয়োজনে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সকাল দশটায় বেলুনের উড্ডয়নের মাধ্যমে দিনব্যাপী কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনের পরে প্রেসক্লাব থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

শোভাযাত্রায় বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার ৩শতাধিক মানুষ অংশ গ্রহণ করেন। শোভাযাত্রা শেষে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তারা লিঙ্গ-নিরপেক্ষ আইনের দাবি তুলে বলেন, আমরা লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার হই। পরিবার ও সমাজ ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করি। সংহতি প্রকাশ করে সমাবেশে অংশগ্রহণ করেন পরিবার বাঁচাও আন্দোলন, শিরাজী ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস এন্ড প্রেস সোসাইটি, জাগো বাংলাদেশ, বাংলাদেশ শিশু-কিশোর ফাইন্ডেশন, মানবাধিকার জোট ও মানব কল্যাণ পরিষদ।

এরপর বিকেল ৩টায় এইড ফর মেন ফাউন্ডেশনের আয়োজনে জাতীয় প্রেসক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলরুমে নারী নির্যাতন আইনের অপপ্রয়োগ রোধে আমদের করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী অ্যাডভোকেট এলিনা খান, বিশেষ অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাউসার হোসাইন, অ্যাডভোকেট ইসরাত হাসান, চলচিত্র নির্মাতা “সংশোধন” রাসেল মিয়া, পরিবার বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি ডা: মাহফুজুর রহমান, আরও উপস্থিত ছিলেন বরগুনার আলোচিত হত্যাকাণ্ডের শিকার রিফাত শরীফের বাবা দুলাল শরীফ। উক্ত সভার সভাপতিত্ব করেন ফাউন্ডেশনের সভাপতি ড. আব্দুর রাজ্জাক খাঁন, ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম নাদিম বলেন, বর্তমান নারী নির্যাতন আইন অনেকটা একপেশে এবং এই আইনের ব্যাপক অপপ্রয়োগ হচ্ছে। নারী নির্যাতন আইনের অধীনে প্রায় ৮০% শতাংশ মিথ্যা মামলা হচ্ছে এবং এই আইনে জামিন পাওয়া কঠিন হওয়ায় পুরুষ এই আইনে ভুক্তভোগী হচ্ছে। এছাড়াও একশ্রেণীর নারী একাধিক বিয়ের মাধ্যমে কাবিন বাণিজ্য করছে। পরিশেষে তিনি লিঙ্গ নিরপেক্ষ আইন প্রণয়ন ও বিবাহ রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি ডিজিটালাইজেশনের দাবী করেন।