উত্তরে আতিকই ফের ভরসা


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ - ১২:৫১:২৯ অপরাহ্ন

ফের নগরপিতা হিসেবে আতিকুল ইসলামের ওপরই ভরসা রেখেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) বাসিন্দারা। ‘সবাই মিলে সবার ঢাকা; সুস্থ, সচল আধুনিক ঢাকা’ গড়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে মেয়র পদে নির্বাচনে নামা বিশিষ্ট এ ব্যবসায়ী তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়ালকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে জয়লাভ করেছেন।

ডিএনসিসি নির্বাচনে মোট এক হাজার ৩১৮টি কেন্দ্রের সবকটির ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী, নৌকা প্রতীকের আতিকুল ইসলাম পেয়েছেন ৪ লাখ ৪৭ হাজার ২১১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী তাবিথ আউয়াল পেয়েছেন ২ লাখ ৬৪ হাজার ১৬১ ভোট।

শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টায় ভোটগ্রহণ শেষ হলে শেরেবাংলা নগরের কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় মিলনায়তনে ডিএনসিসির ফলাফল ঘোষণা শুরু হয়। ফলাফল ঘোষণা চলে রাত পৌনে ৩টা পর্যন্ত। ফল ঘোষণার শেষে ডিএনসিসির রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাসেম বেসরকারিভাবে আতিকুল ইসলামকে বিজয়ী ঘোষণা করেন।

আনিসুল হকের প্রয়াণের পর ডিএনসিসির মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে জয় লাভ করে নয় মাসের মতো দায়িত্ব পালন করেন আতিকুল ইসলাম। এবারের নির্বাচনের আগের প্রচারণায় আতিকুল ওই নয় মাসকে তার অভিজ্ঞতা-অর্জনের সময়কাল বলে উল্লেখ করেন এবং এ অভিজ্ঞতায় ঢাকা সাজাবেন বলে অঙ্গীকার দেন নগরবাসীকে।

ঘোষিত ফলাফলে দেখা যায়, ডিএনসিসিতে মেয়র পদে লড়াই করা ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী শেখ মো. ফজলে বারী মাসউদ হাতপাখা প্রতীকে পেয়েছেন ২৮ হাজার ২০০ভোট; ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) প্রার্থী মো. আনিসুর রহমান দেওয়ান আম প্রতীকে ৩ হাজার ৮৫৩ ভোট; প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের (পিডিপি) প্রার্থী শাহীন খান বাঘ প্রতীকে ২ হাজার ১১১ ভোট এবং বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির প্রার্থী আহম্মেদ সাজেদুল হক রুবেল কাস্তে প্রতীকে পেয়েছেন ১৫ হাজার ১২২ ভোট।

এর আগে শনিবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয় ভোটগ্রহণ। ইভিএম জটিলতাসহ বিভিন্ন অভিযোগের মধ্য দিয়ে ভোট চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ভোট শেষে উত্তরের বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে একে একে ভোটের ফলাফল ও সরঞ্জামাদি নিয়ে এখানে আসতে থাকেন বিভিন্ন কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসাররা।

ডিএনসিসিতে মোট ভোটার সংখ্যা ৩০ লাখ ১০ হাজার ২৭৩ জন। তাদের মধ্যে পুরুষ ১৫ লাখ ৪৯ হাজার ৫৬৭ এবং নারী ১৪ লাখ ৬০ হাজার ৭০৬ জন। এই সিটিতে মোট ভোটকেন্দ্র এক হাজার ৩১৮টি। সাধারণ ওয়ার্ড ৫৪টি এবং সংরক্ষিত ওয়ার্ড ১৮টি।