বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ১০:৫৪ পূর্বাহ্ন

উত্তরা নিউজের রিপোর্টে খাদ্য সামগ্রী পেল ৯টি পরিবার

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২১ এপ্রিল, ২০২০
  • ০ Time View

উত্তরা নিউজ-এ প্রকাশিত সংবাদ দেখে ৯টি দুঃস্থ পরিবারের পাশে এগিয়ে আসলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ফাউন্ডেশন, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি কাজী খলিলুর রহমান।

২১, এপ্রিল মঙ্গলবার দুপুরে উত্তরা ৫নং সেক্টরের একটি প্লটে বসবাসরত এসব বাসিন্দাদের হাতে খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন তিনি।

করোনার এই দুর্দিনে খাদ্য সহায়তা পেয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন নিম্নবিত্ত শ্রেণির এই মানুষগুলো। একই সাথে লকডাউন চলাকালীন সময়ে ঘরে খাবারের বন্দোবস্ত থাকলেই দুঃশ্চিন্তায় সময় পার করতে হতো না বলে জানান তারা।

ছবি: উত্তরা নিউজকে সাক্ষাৎকারকালে বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী খলিলুর রহমান।

এদিকে, খেটে খাওয়া পরিবারগুলোর মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শেষে বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী খলিলুর রহমান উত্তরা নিউজকে বলেন, ‘দু-তিন দিন আগে উত্তরা নিউজ এর একটি প্রতিবেদনে দেখতে পাই যে, উত্তরার বিভিন্ন স্থানে ১২৩ দুঃস্থ পরিবার লকডাউনে খুব কষ্টে জীবন-যাপন করছে। আজ এসব পরিবারগুলোর চুলোয় রান্না বসলেও আগামী কি খাবে তারা এ নিয়ে পরিবার গুলোর শঙ্কার কথা আমাকে খুবই ব্যাথিত করে। তাই উদ্যোগ নিলাম অনন্ত কয়েকটা পরিবারকে হলেও সহযোগিতা করব। মূলত এখান থেকেই উত্তরা নিউজের সাথে যোগাযোগ করি আমি চলে এসেছি।’

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ফাউন্ডেশন, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি বলেন, অসহায় মানুষদের পাশে থাকা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শিক্ষা। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু বলার মধ্য দিয়ে আমরা শক্তি অর্জন করেছিলাম তা আজও অব্যাহত আছে। জাতির যেকোন দুর্দিনে অসহায় মানুষদের সহযোগিতা করে যেতে আমরা প্রস্তুত আছি।

তিনি আরও বলেন, ‘সমাজের উচ্চবিত্তদের এখন উচিত আশপাশের অসহায় মানুষগুলোর প্রতি সহায়তা প্রদান করা। ইনশাআল্লাহ করোনার এই প্রকোপ সারাজীবন থাকবে না, এই দুর্দিন শীঘ্রই কেটে যাবে।’

বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী খলিলুর রহমানের এই উদ্যোগের ভ্রুয়সী প্রশংসা করেছেন স্থানীয় অপর মুক্তি সংগ্রামী বীর যোদ্ধা এস কে এ ইসলাম বাবলু। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘মুক্তিযোদ্ধা খলিলুর রহমান সাহেবকে এসব অসহায় মানুষদের পাশে এগিয়ে আসার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ। সেই সাথে ধন্যবাদ উত্তরা নিউজের পরিশ্রমী রিপোর্টারদের প্রতি। যাদের সহযোগিতায় আজ এই পরিবারগুলো খাদ্যসামগ্রী পেয়েছে। সত্যিই সকল বিত্তবিনদেরই এই সময়ে দুঃস্থ মানুষের পাশে এগিয়ে আসা উচিত।’

বৈশ্বিক মহামারি করোনার বিপর্যয় হতে রক্ষা পেতে হলে এ ভাইরাস যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সেজন্য সবাইকে নিজ নিজ ঘরে অবস্থান করতে হবে। আর এসব নিম্নবিত্ত মানুষদেরকে নিরাপদে ঘরে রাখতে হলে প্রয়োজন পর্যাপ্ত খাদ্য সহায়তা। সরকারের পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী খলিলুর রহমানরা এগিয়ে আসলেই শহরের এসব দুঃস্থ পরিবারগুলোর নিশ্চিতে কেটে যাবে সময়, ঘুচাবে করোনার অন্ধকার আর ফিরে আসবে সুদিন। এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © uttaranews24
themesba-lates1749691102