উত্তরায় প্রশ্নবিদ্ধ সাংবাদিকতা! এ দায় কার?


» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ২৩ এপ্রিল ২০১৯ - ০২:২৩:৩৩ অপরাহ্ন


একের পর এক সাংবাদিকতার নামে উত্তরায় অপরাধ করে যাচ্ছে এক শ্রেণির সাংবাদিক নামধারী অসাধু লোকজন। ঢাকা শহরের অন্যান্য এলাকাগুলোর তুলনায় উত্তরার ভৌগলিক পরিধি তুলনামূলক বড় হওয়ায় এখানে সকল শ্রেণিপেশার মানুষের সাথে সাথে পেশাদার সাংবাদিকদের সংখ্যাও বেশি; এটা স্বাভাবিক। কিন্তু, উত্তরায় সাংবাদিক পরিচয়ে এমন বেশ কিছু লোক রয়েছে, যারা নিজেদেরকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে সম্প্রতি সময়ে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। অথচ চরম লজ্জাজনক সত্য এই যে, এদের শিক্ষাগত যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত আছে কিনা, তাতেও সন্দেহ রয়েছে। একটি প্রতিবেদন কিভাবে তৈরি করতে হয় এসবের কিছুই জানেনা তারা । এমনকি এদের পাঠানো প্রতিবেদনের মূল খবর থেকে শুরু করে নিউজ টাইটেল-এর বানান পর্যন্ত ভুল। এতদসত্ত্বেও কিছু কিছু গণমাধ্যমের সম্পাদকগণ এদের দেওয়া যা ইচ্ছা তাই ছাপিয়ে যাচ্ছেন অসতর্কতাবশতঃ।

আর যদি এর আগের কিছু বলতে চাই তাহলে প্রশ্ন আসে, আসলে এসব যোগ্যতাহীন লোকগুলো নির্দিষ্ট গণমাধ্যমের পরিচয়পত্র পাচ্ছেই বা কিভাবে? উত্তরটা হয়তো অনেকেরই জানা আছে। কেননা, টাকার কাছে সাংবাদিক পরিচয়পত্র বর্তমানে বড়ই তুচ্ছ!
বর্তমান সময়ে যেসব অপরাধীরা বিভিন্ন দোষে যেসব অপরাধীরা আইনের কাঠগড়ায় দাঁড়াচ্ছে এরা কেউ কেউ সাংবাদিক পরিচয়ে মানুষকে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে, কেউ কেউ নিয়মিত দোকানপাট, হকার থেকে শুরু করে বিভিন্ন অপমহলের কাছ থেকে চাঁদা আদায় করছে আবার কেউ কেউ নিজেদের অপকৌশল ঢাকতেই নিজেকে সাংবাদিক পরিচয়ে সমাজে প্রতিষ্ঠা করার পাঁয়তারা চালাচ্ছে। সবচেয়ে লজ্জাজনক হচ্ছে, উত্তরায় সাংবাদিক পরিচয়ে একশ্রেণি দেহব্যবসা, মাদকসহ বড় বড় সব অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে দিনের পর দিন। আর শেষ পর্যন্ত যখন এরা ধরা খাচ্ছে, ঠিক তখনই বাঁচার আশায় নিজেকে সাংবাদিক পরিচয়ে আবির্ভূত করছে। ফলে দিন দিন উত্তরায় ‘সাংবাদিক’ শব্দটি সর্বস্তরের মানুষের কাছে আস্থার জায়গা হারিয়ে ‘ভুয়া’ তে রূপ নিতে চলেছে। এরকম পরিস্থিতিতে সাংবাদিক শব্দটির সাথে ‘আসল’ না ‘ভুয়া’ প্রাথমিক অবস্থায় সাধারণ মানুষের মনে সেটিরও উদগ্রীব হচ্ছে। যখন অসাধু ও নীচ প্রকৃতির মানুষেরা সাংবাদিকতার পরিচয়ে উত্তরার বিভিন্নস্থানে পরিচালিত ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠানসমূহের নামে ভিত্তিহীন, মিথ্যা তথ্য প্রচার করে গণমানুষের কাছে প্রকৃত সাংবাদিকদের স্থান একের পর এক মলিন করে চলছে! তখন এই অঞ্চলেরই প্রকৃত তথা পেশাদার সাংবাদিকদের অবস্থান কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়? উত্তরার সচেতন সাংবাদিক মহলের কাছে প্রশ্নটি রইল।

সবকিছু মিলিয়ে একথা সত্য যে, উত্তরাতে যেসব অসাধু-চরিত্রহীন লোকেরা সাংবাদিক পরিচয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে- বর্তমানে এরা খুব দাপটের সাথেই চলছে। কেননা দূর্নীতিগ্রস্থ অপশক্তির সাথে এসব কথিত সাংবাদিকদের বেশ ভালো সম্পর্ক বিদ্যমান। ফলে এদের বিরুদ্ধে উত্তরার পেশাদার সাংবাদিকেরা কোন ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ! এমনকি এসব কথিত সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে কথা বলার চেষ্টা করলে, প্রকৃত সাংবাদিকদের হেনস্থার শিকার হতে হচ্ছে। এর একমাত্র কারণ, পেশাদার সাংবাদিকদের কোন ধরনের শক্ত ইউনিট এখন পর্যন্তু উত্তরায় গড়ে ওঠেনি। ফলে কতিপয় ভুঁইফোড় সাংবাদিক নামধারী ব্যক্তিরা সাংবাদিক পরিচয়ে লাগামহীন অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। এতে করে উত্তরার সাধারণ মানুষের কাছে প্রকৃত পেশাদার সাংবাদিকদের স্থান স্থান দিন দিন প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে।

লেখক- মোহাম্মদ তারেকউজ্জামান খান
সম্পাদক ও প্রকাশক, সাপ্তাহিক উত্তরা নিউজ, ই-মেইল: uttaranews13@gmail.com