‘ইমাম ও আলেমদের সম্পৃক্ত করে জনঘনিষ্ঠ সিটি কর্পোরেশন গড়ে তোলা হবে’

মেয়রপ্রার্থী অধ্যক্ষ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ

» উত্তরা নিউজ ডেস্ক জি.এম.টি | | সর্বশেষ আপডেট: ২৯ জানুয়ারি ২০২০ - ০৭:২৯:৩৪ অপরাহ্ন

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে হাতপাখা প্রতীকের মেয়রপ্রার্থী অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ আজ প্রচারণার ২০ তম দিনে ভাটারায় গণসংযোগ করেন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী।

গণসংযোগপূর্ব পথসভায় মাওলানা মাসউদ নগরবাসীর উদ্দেশে বলেন, ঢাকা আমার-আপনার শহর। এর সঙ্গে আমাদের ভালো-মন্দ জড়িত। এখন আমাদের সিদ্ধান্তের ওপর ঢাকার ভবিষ্যত নির্ভর করছে। ১ ফেব্রুয়ারি আমাদেরকে সঠিক ও সাহসী সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তিনি বলেন, আমরা দায়িত্ব পেলে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার আলোকে এবং ২৫ দফা অঙ্গীকার ও ৩১ দফা কর্মসূচির মাধ্যমে দুর্নীতি ও দূষণমুক্ত স্মার্ট ঢাকা গড়ে তুলবো। হযরত ওমর রা এর নীতিতে জনঘনিষ্ঠ হয়ে কাজ করবো। সেবা নিয়ে জনগণের নিকট ছুটে যাবো। ইমাম ও আলেমদের সম্পৃক্ত করে জনবান্ধব সিটি কর্পোরেশন গড়ে তুলবো। তরুণ ভোটারদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আসুন আমরা পরিবর্তনের শপথ নেই। সুন্দর ভবিষ্যৎ নির্মাণের জন্য দুর্নীতি ও দূষণমুক্ত স্মার্ট ঢাকা গড়ার শপথ নেই।

দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য মাওলানা সৈয়দ মাদানী বলেন, নির্বাচন কমিশন ভোট কারচুপির নতুন নাটক মঞ্চায়ন করছে। তাদেরকে বলবো, অনেক হয়েছে, এবার মেরুদন্ডটা সোজা করে দাঁড়ান। দয়া করে কমিশনের স্বাধীন সত্বাকে হত্যা করবেন না। মাওলানা মাদানী আরো বলেন, আওয়ামীলীগ ভোট ডাকাতির নতুন নতুন ফন্দি আঁটছে। অতীতে চর দখলের মতো প্রকাশ্যে কেন্দ্র দখল করেছে। কখনো নৈশভোটের কলঙ্কিত অধ্যায় রচনা করেছে। এখন তারা ডিজিটাল পদ্ধতিতে ভোট ডাকাতি করতে চায়। তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ১লা ফেব্রুয়ারি ভোট ডাকাতির চেষ্টা হলে জনগণ রুখে দাঁড়াবে।

গণসংযোগ কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নগর উত্তর সেক্রেটারি মাওলানা আরিফুল ইসলাম, ইশা ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি হাছিবুল ইসলাম, জয়েন্ট সেক্রেটারি আব্দুজ্জাহের, প্রচার ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক কে এম শরীয়াতুল্লাহ, সাহিত্য সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় সদস্য মুনতাসির আহমদ, নগর উত্তর সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, পশ্চিম সভাপতি আলমগীর হোসাইন, সরকারি তিতুমীর কলেজ সভাপতি শফিকুল ইসলাম, ইসলামী আন্দোলনের নগরনেতা আলহাজ্ব আলাউদ্দিন, ভাটারা থানা সভাপতি মুফতি হাবীবুল্লাহ, মাওলানা মিজানুর রহমান, আবু বকর সিদ্দিক, ছাত্রনেতা মিজানুর রহমান প্রমুখ। মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ আজ সাঈদনগর, একশ ফিট এলাকা, ছোলমাইদ, বসুমতি, ঢালিবাড়ি, বারিধারা, নতুন বাজার, নুরেরচালা, নয়ানগর, খিলবাড়ির টেক, বোটঘাট এলাকায় গণসংযোগ করেন। গণসংযোগে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী ও স্থানীয় জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন। একজন উচ্চ শিক্ষিত ও আলেম প্রার্থী হিসেবে ভোটাররা মাওলানা মাসউদের প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করেন। এসময় এলাকার শ্রদ্ধাভাজন মুরুব্বিগণ তাঁর জন্য দোয়া করেন।