আমি দিয়েছি বই, খালেদা জিয়া দিয়েছিলেন অস্ত্র -প্রধানমন্ত্রী


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ০৫ জানুয়ারি ২০২০ - ১১:১২:২৯ পূর্বাহ্ন

শনিবার রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ছাত্রদের হাতে আমি বই তুলে দিয়েছিলাম আর খালেদা জিয়া দিয়েছিলেন অস্ত্র। জিয়াউর রহমান-এরশাদসহ যারা অবৈধভাবে ক্ষমতায় এসেছেন খালেদা জিয়াসহ তারা ছাত্রদের হাতে অস্ত্র, মাদক তুলে দিয়ে সন্ত্রাস, মানি লন্ডারিং, অবৈধভাবে দখল করা ক্ষমতাকে বৈধ করার একটা হাতিয়ার হিসেবে বহু মেধাবী ছাত্রের জীবন নষ্ট করেছেন। এমনকি সাত খুনের আসামিকে ছেড়ে দিয়েও রাজনীতি করার অধিকার দিয়েছিলেন।

তিনি বলেন, একটা সুস্থ রাজনৈতিক ধারাকে বারবার নষ্ট করার প্রচেষ্টা তারা সবসময় নিয়েছেন। যারাই এ রকম অবৈধভাবে ক্ষমতায় এসেছে আমরা জিয়াউর রহমান বলি, এরশাদ বলি এমনকি খালেদা জিয়া সবসময় আমরা দেখেছি তারা এই মেধাবী ছাত্রদের ব্যবহার করেছে লাঠিয়াল বাহিনী, অস্ত্রধারী, সন্ত্রাসী, জঙ্গিবাদ, মাদক, মানি লন্ডারিং নানাভাবে তাদের ব্যবহার করা এবং তাদের ক্ষমতাকে কুক্ষিগত করার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করেছে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, আদর্শ ছাড়া, নীতি ছাড়া, সততা ছাড়া কখনো কোনো নেতৃত্ব গড়ে উঠতে পারে না। কোনো নেতৃত্ব দেশকে কিছু দিতে পারে না, জাতিকে কিছু দিতে পারে না। মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পারে না। কোনো ধরনের সফলতা দেখাতে পারে না। সাময়িকভাবে অর্থ-সম্পদের মালিক হতে পারে, নাম-ডাক হতে পারে কিন্তু সেখানেই তারা বিলীন হয়ে যায়। কিন্তু দেশের জন্য বা ইতিহাসের জন্য কিছু রেখে যেতে পারে না।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুও ছাত্র রাজনীতির মাধ্যমে উঠে এসেছেন কিন্তু তিনি একটা দেশ দিয়ে গেছেন, স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন। দিতে পেরেছেন কেন কারণ উনার শক্তি ছিল, সততার শক্তি, নীতি ছিল সাহস ছিল। তিনি কখনো নীতির সঙ্গে আপস করেননি। যেটাকে তিনি সত্য বলে মনে করেছেন সেটার জন্য তিনি সর্বদা ত্যাগ স্বীকার করেছেন।

ছাত্রলীগ নেতাদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের অনুরোধ করেছেন ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদকে ভারমুক্ত করতে। সেই অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে আজকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ভারপ্রাপ্ত থেকে ভারমুক্ত ঘোষণা করলাম। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এখন ভারমুক্ত।

 

সূত্রঃ জাগো নিউজ