উত্তরা নিউজ উত্তরা নিউজ
অনলাইন রিপোর্ট


আমি আজ স্বাধীন , আমার স্বাধীনতার কাছে






চন্দনা আহম্মেদ

আমি আজ স্বাধীন ,
আমার স্বাধীনতার কাছে !!
হয়তো বলবে , কিভাবে পেলে ?? এই স্বাধীনতা !
তবে শোন , কোন করুনা নয় , কোন দয়া ভিক্ষা নয় !
একটি অকুতোভয় সংগ্রামী বজ্র কন্ঠে সার্বভৌমতের ডাকে
এক সাগর রক্তে , প্রেমিকের প্রেয়সীর সত্বীতে,
অবুঝ শিশুর অশ্রু লালা ঝরা আর্তনাদে ,
আজ আমি স্বাধীন , আমার স্বাধীনতার কাছে !!

সে দিন তো আমার পিতা , আমার ভাই , আমার ছেলে
মাথা নত করে বুক সংকুচিত করেনি, বন্দুকের সন্মূখে ,
হাসিতে এগিয়েছিল বুক
ঝাঝড়ির মতো ঝাঝড়া ক্ষত বিক্ষত‌ দু সারি পাজর !
সেকে সেকে পরছিল রক্ত রস !
মেধার নিউরণ গুলোকে তব্ধ করেছে বুলেটের বারুদে
শত শত অন্নাশ্রম বশীভূত অগ্নি লেলিহান শিখায়
অবশিষ্ট রয়েছিল নিংড়ানো আকাঙ্খা !!
স্বাধীনতা ! স্বাধীনতা ! স্বাধীনতা !

বুককে ঢাল হাতকে তরবারি সত্বীতকে ফাদঁ
মরণনেশায় মেতে ছিল থুবড়ে পরা জনতা !
পিঠ পেতে দেয়ার আগে বুক পেতে দিতে তারা কুন্ঠাবোধ করে নি !
কান টানার আগে মাথা করাতে দিতে দিধা করেনি ,
কোন স্বৈর সাশনের কাছে ।
হে স্বৈরসাশকের দল !!
ওরা তো কাপুরুষ , ভীরু , লম্পট , ইতর !
আলোকহীন কালো রাতে , নীরহ মানুষের উপর পিশাচিকতায় ,
কেড়ে নিস অস্ত্রহীন প্রাণ , শক্তিহীন নারীর সত্বীত , অবুঝ শিশুর নির্ভয় কান্না !
ওরে , তোদের যদি এতোই বুকে বল ?
পিঠে আঘাত না করে , বুকে আঘাত করলি না কেন ??
বুকের সাথে বুক মিলিয়ে দেখ !
হাতের সাথে হাত রেখে দেখ !
বারুদের সাথে বারুদ জ্বালীয়ে দেখ !
কাদের বুক সাহসী ?
কাদের হাত শক্ত ?
কাদের বারুদ ঝাঝালো ?
তবে তোরা দেখে নে , আজ আমি স্বাধীন
আমার স্বাধীনতা র কাছে !!
uttaranews24.com