আপনারা সবাই বঙ্গবন্ধুর জন্মে ধন্য গোপালগঞ্জের অধিবাসী: বেনজীর আহমেদ (ভিডিও)


» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০১৯ - ০৩:০২:২৪ অপরাহ্ন

বৃহত্তর উত্তরাস্থ গোপালগঞ্জ অ্যাসোসিয়েশনের পরিচিতি ও আলোচনা সভাটিতে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটলিয়নের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, উত্তরাতে এত গোপালগঞ্জের লোক আছে জেনে আমার খুব ভালো লাগছে, আমি উৎফুল্ল বোধ করছি। এর পরের বিষয়টা হলো যে, আপনারা উত্তরাতে এ ধরনের অ্যাসোসিয়েশন করতে পেরেছেন এটাও আমি মনে করি এটা অনেক বড় একটা এচিভমেন্ট সেজন্য আপনাদেরকে অভিনন্দন। তিনি বলেন, বিপদ-আপদে নিজেদের জন্য, দেশের জন্য, রাষ্ট্রের জন্য, জনগণের জন্য সবাই এভাবে একতাবদ্ধ থাকবেন এই প্রত্যাশা করি।

র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, আপনারা জানেন যে, আপনারা এমন এক জেলার লোক, এমন এক জেলার বাসিন্দা, যেখানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম হয়েছে। আপনারা সবাই বঙ্গবন্ধুর জন্মে ধন্য গোপালগঞ্জের অধিবাসী এবং বঙ্গবন্ধুর জন্য আমরা এ দেশ পেয়েছি, মানচিত্র পেয়েছি, একটি ভূখ- পেয়েছি। হাজার বছরের ক্ষুধা এবং দারিদ্র্য, অসম্মানকে ধ্বংস করে দিয়ে স্বাধীন ভূখন্ড, স্বাধীন মানুষ হিসেবে আত্মমর্যাদাশীল জাতি হিসেবে বেঁচে থাকার জন্য বঙ্গবন্ধু আমাদেরকে এই দেশ উপহার দিয়ে গেছেন।

ছবি: বা থেকে অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, এমপি, মোহাম্মদ ফারুক খান, এমপি, র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, বিশেষ অতিথি ও উত্তরাস্থ গোপালগঞ্জ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শেখ মামুনুল হক (শেখ মামুন)।

বঙ্গবন্ধুর কথা স্মরণ করে তিনি আপ্লুত হয়ে বলেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায় তাকে নির্মমভাবে নিহত হতে হয়েছে স্বাধীনতার শত্রুদের কাছে। আল্লাহর কাছে অসীম শুকরিয়া আজকে বঙ্গবন্ধু তনয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ দ্রুত গতিতে অগ্রযাত্রার মহাসড়কে ধাবমান।

তিনি বলেন, “১৯৭১ সালে যখন এদেশ স্বাধীন হয় তখন পৃথিবীর বাঘা বাঘা বোদ্ধা অর্থনীতিবীদরা বলেছিলেন এদেশ টিকবে না। এর কারণ হিসেবে তিনি উল্লেখ করে বলেন, ওভার পপুলেশন। তিনি বলেন, এই জিওগ্রাফিকাল দিক অনুযায়ী আমাদের ভূখ-ে আয়তনের চেয়ে অনেক অনেক বেশী মানুষ বাস করেন। আমাদের খনিজ সম্পদ নেই, আমাদের কোন রপ্তানিযোগ্য পণ্য নেই ,আমাদের কোন ইন্ডাস্ট্রি নেই তাহলে এদেশ টিকবে? এসময় তিনি এসব অর্থনীতিবীদদের ধারণা ভেঙ্গে দিয়ে বলেন, “১৯৭১ সালে এদেশে সাড়ে সাত কোটি মানুষ ছিল এবং এই সাড়ে সাত কোটি মানুষের জন্য পর্যাপ্ত খাদ্য উৎপন্ন হতো না। আজকে এদেশে ১৮ কোটিরও বেশি মানুষ বাস করে। প্রতিবছর শিল্পায়ন ও নগরায়নের ফলে হাজার হাজার একর কৃষিজমি কৃষি জমি শিল্পায়ন-নগরায়নের দিকে চলে যাচ্ছে তারপরেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে কৃষ্টি বিপ্লব অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফলে এদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ।”

র‌্যাব প্রধান বেনজীর আহমেদ বলেন, “আমরা এখন নিম্ন থেকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়েছি। বিশ্বে সামাজিক উন্নয়নের অনেক সূচকে আমরা পার্শ্ববর্তী অনেক দেশের তুলনায় এগিয়ে আছি। আপনারা জানেন, সম্প্রতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভারত সফর থেকে এসেছেন। সফর চলাকালীন ভারতের প্রধান প্রধান পত্রপত্রিকায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সফর নিয়ে সংবাদও প্রকাশিত হয়েছে, এখনও হচ্ছে এবং গতকাল হিন্দুস্তান টাইমস বলেছে, বাংলাদেশ হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার ইঞ্জিন এবং এই ইঞ্জিনের চালক হচ্ছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। অর্থনৈতিকভাবে দেশে যে বিপ্লব সংঘটিত হয়েছে সেটাকে অনেকে বলে ‘বাংলাদেশ ম্যাজিক’। আর এই ম্যাজিকের ম্যাজিশিয়ান হচ্ছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমরা সেই জেলার লোক।”

এসময় তিনি উত্তরাস্থ বৃহত্তর গোপালগঞ্জ অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দদের উদ্দেশ্য করে বলেন, “আপনারা উত্তরায় অ্যাসোসিয়েশন করেছেন আমি প্রত্যাশা করব এই এসোসিয়েশন যেন নামের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থাকে। আপনারা পরস্পর পরস্পরকে সহায়তা করবেন- ভাই হিসেবে, বোন হিসেবে। একই সঙ্গে এই এলাকার মানুষ হিসেবে ঢাকা শহরের জন্য চিন্তা করবেন। সবমিলিয়ে দেশের জন্য এলাকার জন্য ভালো কিছু করবেন।”

সর্বশেষ, যেকোন ভালো কাজে উত্তরাস্থ বৃহত্তর গোপালগঞ্জ অ্যাসোসিয়েশনের থাকার প্রত্যাশা ব্যক্ত করে র‌্যাব ডিজি বলেন, “আপনাদের যেকোন ভালো কাজের সাথে আমিও থাকতে চাই।” যেকোন সহায়তার জন্য সব সময় অ্যাসোসিয়েশনের জন্য সব সময় তাঁর দরজা খোলা থাকবে বলে জানান তিনি।