আদর্শ সমাজ গঠনে ইলমের গুরুত্ব ও প্রয়োজনিতা

হাফেজ মাওলানা মুফতি আব্দুল্লাহ

» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ২৫ ডিসেম্বর ২০২০ - ০৬:৩৮:২৮ অপরাহ্ন

সুশৃঙ্খল ও শান্তিপূর্ণ সমাজ বা রাষ্ট্রের জন্য শিক্ষা ছাড়া  বিকল্প কোনো পথ নাই।সমাজ বা রাষ্ট্রকে আদর্শ করে তুলতে হলে শিক্ষা  অপরিহার্য।শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। যে সমাজ বা রাষ্ট্রের নাগরিক শিক্ষিত, সেই সমাজ বা রাষ্ট্র তত উন্নত।তবে প্রশ্ন হলো,কোন শিক্ষার্জন করলে সমাজ বা রাষ্ট্র আদর্শ সমাজ বা রাষ্ট্র পরিণত হবে?  সেই ক্ষেত্রে উত্তর আমাকে আপনাকে ভেবেচিন্তে দিতে হবে।এমন শিক্ষার্জন করা, শিক্ষা  লুটতরাজ, রাহাজানি, গোত্রকলহ,যেনা- ব্যভিচারসহ যাবতীয় অন্যায়কে অন্যায় বলে,ও তার থেকে বিরত থাকার জন্য জোরাল তাগিদ দেয়। আর সেই শিক্ষা হলো দ্বীনের শিক্ষা,  যাকে আরবি ভাষায় ইলম বলে। এ ইলমের লক্খ উদ্দেশ্য হলো,সৃষ্টিকর্তা আল্লাহ ও তাঁর রাসূলকে সন্তুষ্ট করা।সুতরাং যে কাজ করলে আল্লাহ ও তার জন্য রাসূল সন্তুষ্ট হবেন সেই কাজ করার প্রতি ইলম গুরুত্ব প্রদান করে। আর যে কাজে আল্লাহ ও তার রাসূল অসন্তুষ্ট হবেন, সেই কাজের প্রতি অনিহা সৃষ্টি করে।
অতএব  এমন ইলম শিক্ষার্জন করা সকল মুসলিম নারী পুরুষের জন্য ফরয।আমাদের প্রিয় নবী সাঃ বলেন :
طلب العلم فريضة علي كل مسلم ” الحديث”
অর্থ ঃ প্রত্যেক মুসলিমের উপর ইলম অন্বেষণ করা ফরয। ইলম, সততা ও ন্যাপরায়ণতার পথ দেখায়। আর দ্বারা ভালো – মন্দ নির্ণয় করা যায়।  এবং অন্যায়ের প্রতিরোধ ও ন্যায়  প্রতিষ্ঠা করা যায়।
এ ইলম শিক্ষার্জনকারীকে ” তালিবুল ইলম ” বলে। আর তার সনদ প্রাপ্ত ব্যক্তিকে ” আলেম” বলে।  কুরআন হাদিসে ” ইলম”  ও “আলেমের ” গুরুত্ব ও মর্যাদা সুরবিস্তার বর্ণিত আছে। সবথেকে বড় বিষয় হলো এ ইলম শিক্ষা অর্জনের জন্য স্বয়ং আল্লাহ ” ইকরাহ ” বলেছেন। এবং বলেছেন  উলামাগণ ( অন্যায় অবিচারের ক্ষেত্রে) আল্লাহকে বেশি ভয় করে।তাহলে আদর্শ সমাজ বা রাষ্ট্র গঠনের জন্যে দ্বীনের শিক্ষা অতি গুরুত্বপূর্ণ ও তার প্রয়োজনিতা অপরিহার্য। তা ছাড়া সমাজ বা রাষ্ট্র কলহ মুক্ত করা অসম্ভব। অন্যায় অবিচার সুদ, ঘুষ,চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজিতে হবে সমাজ কোলষুক্ত। অসহায় দূর্বলরা পাবেনা ন্যায়বিচার। সবল শক্তিশালীরা পাবে অন্যায়ের অবকাশ।
ইলম না থাকলেঃ মানুষ মন্দকে মনে করবে আধুনিকতা। আর  হায়া লজ্জা বা ভদ্রতা মনে করবে প্রাচীনতা।মানুষের রুচির পরিবর্তন হবে।সমাজে উৎকৃষ্ট মানুষ পাওয়া যাবেনা।তবে নিকৃষ্ট মানুষের অভাব হবেনা।
অতএব ইলমের মাধ্যমে আদর্শ ও সুশৃঙ্খল সমাজ গঠন সম্ভব। বিকল্প শিক্ষার মাধ্যমে অসম্ভব। আল্লাহ সকলকে সঠিক বুঝ দান করুন। আমিন।

লেখক: সিনিয়র মুহাদ্দিস, দারুলউলুম দক্ষিণখান মাদরাসা।