আজীবন বহিস্কৃত হয়েছে মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম কমান্ড থেকে যুবলীগ নামধারী সোহান

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এর জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল কর্তৃক অনুমোদিত মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মের অঙ্গ সংগঠন মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম কমান্ড এর জয়নাল আবেদীন সোহান নামে এক নেতাকে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আজীবন বহিষ্কার আদেশ দেন ১৪-ই অক্টোবর ২০২০ সংগঠনের চেয়ারম্যান ইপুনোর রহমান মুন্না ও মহা সচিব মাসুদ রানা।

» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ০৯ নভেম্বর ২০২০ - ০৯:৫১:৩২ অপরাহ্ন

এই বিষয়ে সংগঠনের সম্মানিত চেয়ারম্যান জানান, দীর্ঘদিন ধরে সংগঠনের বিভিন্ন নেতাকর্মীদের সাথে অসাধু পূর্ণ আচার-আচরণ করে আসছিলেন তিনি।
ইয়াবা এবং অস্ত্রসহ সদ্য অ্যারেস্ট হওয়া তাহার বড় ভাইকে সংগঠনের ব্যানারে সহায়তার প্রচেষ্টা করেন তিনি(সোহান)।
আইনের প্রতি অনাস্থা রেখে প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিভিন্নসামাজিক মাধ্যমে কুরুচিপূর্ণ লেখালেখি সংগঠনকে বিতর্কে ফেলে দিতে পারেন বলে মনে করেন সংগঠনের চেয়ারম্যান।
তাই তাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছিল, তবে পরবর্তীতে নিজের দোষ স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ায় তাকে পূর্ণবহাল করা হয় উক্ত দায়িত্বে।

কিন্তু চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদককে নিয়ে সংগঠনসহ সংগঠনের অভিভাবক মেহেদী হাসান এর বিরুদ্ধে নতুন ষড়যন্ত্রের পাঁয়তারা করছিলো বুঝতে পারায় সংগঠনের চেয়ারম্যান মোটো ফোনে এসবের কারণ জানতে চাইলে এক পর্যায়ে বহিস্কৃত জয়নাল আবেদীন সোহান সরকার অনুমোদিত সংগঠনটিকে ভুয়া বলে দাবি করে, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সম্মানিত বহু নেতার নাম ব্যবহার পূর্বক নিজেকে যুবলীগ নেতা পরিচয় দিয়ে সংগঠনের চেয়ারম্যান এবং কেন্দ্রীয় সহ-প্রচার সম্পাদক ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রধান নজরুল ইসলাম প্রিন্স কে দেশে ফিরে হত্যা করবেন বলে জানান তিনি।

এ সকল ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সংগঠনের গঠনতান্ত্রিক নিয়মানুসারে আজীবনের জন্য তাকে বহিষ্কার করা হয় বলে জানান তিনি। সেই সাথে হত্যার হুমকির দায়ে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান তিনি। আরও জানান তাহার সকল অপকর্ম অতিশীঘ্র আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তরে প্রেরণ প্রক্রিয়া চলছে
এবং তিনি আরও বলেন, ছাত্রলীগ-যুবলীগ কিংবা আওয়ামী লীগ নাম ব্যবহার করে যে বা যারা সংগঠন সহ আওয়ামী সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন সকলকেই তাদের মুখোশ উন্মোচন করার আহ্বান জানান তিনি।