আইচি হাসপাতালের রজত জয়ন্তী উদযাপন


» মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান | উত্তরা নিউজ, স্টাফ রিপোর্টার | সর্বশেষ আপডেট: ১৬ জানুয়ারি ২০২১ - ০৭:৪৯:৩৮ অপরাহ্ন

২৫ বছরে পা রাখল উত্তরার স্বনামধন্য স্বাস্থ্য সেবালয় আইচি হাসপাতাল। শনিবার (১৬ জানুয়ারি) উত্তরা আব্দুল্লাহপুরে অবস্থিত নিজস্ব ভবন চত্বরে রজত জয়ন্তী উদযাপন করে প্রতিষ্ঠানটি। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক, বিশেষ অতিথি ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য হাবিব হাসান, ডিএনসিসি ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আফসার উদ্দিন খান, উত্তরা থানার মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা কুতুব উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেন, এ যাবৎকাল পর্যন্ত আইচি হাসপাতালে এত সংখ্যক শিশুর জন্ম হয়েছে জেনে আমি সত্যিই অবাক হয়েছি। আমাদের দেশের গরীব অসহায় মানুষ জানেনা যে কোথায় ভালো চিকিৎসা পাওয়া যায়। হাস্যজ¦ল ভঙ্গিতে তিনি বলেন, এখন থেকে এখানেও দু একজন রোগী ভর্তি ব্যাপারে অনুরোধ করতে পারব।

তিনি আরো বলেন, আমি চাই দেশে আইচি হাসপাতালের সেবক তৈরি হোক, তাহলেই গণমানুষের জন্য সেবা নিশ্চিত হবে। জয় হোক আইচি হাসপাতাল পরিবারের।

রজত জয়ন্তী অনুষ্ঠানে ঢাকা-১৮ আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য হাবিব হাসান বলেন, একজন প্রকৃত সমাজকর্মী হিসেবে এই হাসপাতালকে গড়ে তুলেছেন উলফাত জাহান মুন। আইচি হাসপাতাল শুরুর সময় উত্তরার মানুষ হাসপাতাল ও ডাক্তার বলতেই মোয়াজ্জেম সাহেবকেই চিনতো। বর্তমানে আইচি বিশাল হাসপাতালে পরিণত হয়েছ। আমি মনে করি কেবল উত্তরা নয় আইচি হাসপাতাল আজ সারাদেশেই নিজেদের অবস্থান তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে।

এর আগে রজত জয়ন্তীর আয়োজনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইচি হাসপাতাল লি. এর চেয়ারম্যান উলফাত জাহান মুন। পরে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন আইচি হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ের কথা তুলে ধরেন। উত্তরা ৭নং সেক্টরে একটি মাত্র ফ্ল্যাটে চিকিৎসা কার্যক্রম শুরু করে কিভাবে ধীরে ধীরে আজকের আইচি হাসপাতাল গড়ে উঠেছে, সেই গল্প অতিথিদের সামনে তুলে ধরেন তিনি। এছাড়াও বাবার স্বপ্ন অনুযায়ী একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন মর্মে সকলের সামনে অনুপ্রেরণীয় বক্তব্য রাখেন ডা. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন। তাঁর এ সফলতায় পরিবারের সদস্যদের অসামান্য ভূমিকার কথাও জানান তিনি।

সকালে বেলুন উড়িয়ে, পায়রা মুক্ত করে অনুষ্ঠানটির উদ্বোধন করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক। পরে বক্তব্য পর্ব শেষে আগত অতিথিদের নিয়ে কেক কেটে রজত জয়ন্তী উদযাপন করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এ সময় আইচি হাসপাতাল লি. এর নির্বাহী পরিচালক ওয়ালী-উল-কাদির শুভসহ স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানটির সকল শ্রেণির কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ চিকিৎসক, নার্স ও শুভাকাঙ্খীরা উপস্থিত ছিলেন।