মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান মুহাম্মদ গাজী তারেক রহমান
উত্তরা নিউজ


আইইউবিএটির ফল-২০১৯ সেমিস্টারের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৫ আগস্ট






ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজির (আইইউবিএটি) ফল-২০১৯ সেমিস্টারের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৫ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ছয়টি অনুষদের অধীনে ৮টি স্নাতক ও একটি সম্মান বিষয়ে এ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

আইইউবিএটিতে স্নাতক পর্যায়ে বিবিএ, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, ইকোনমিকস, এগ্রিকালচার, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট এবং মাষ্টার পর্যায়ে এমবিএ বিষয়ে পড়ানো হয়।

অনলাইনে অথবা সরাসরি আবেদন করা যাবে। ভর্তিচ্ছুদের ১০ জুলাই বেলা ৪টা থেকে ৪ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইটের (www.iubat.edu/admission) মাধ্যমে ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।

আইইউবিএটির স্থায়ী ক্যাম্পাস ঢাকার উত্তরায় ১০ নাম্বার সেক্টরে অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি অফিসেও সরাসরি আবেদন পত্র জমা দেওয়া যাবে।

স্নাতক বিষয়ে ভর্তি হতে চাইলে আবেদন কারীকে এসএসসি এবং এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ২.৫ থাকতে হবে। যারা ২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন তারাও আইইউবিএটিতে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে ১০০% পর্যন্ত রয়েছে মেধা বৃত্তি। এছাড়াও মেয়েদের উচ্চ শিক্ষায় উৎসাহিত করতে ১৫% স্পেশাল বৃত্তিসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ৫৭টি বৃত্তি দেওয়া হয়। মোট কথা আইইউবিএটিতে পড়াশুনা করার জন্য অধিকাংশ শিক্ষার্থীই আর্থিক সহযোগিতা পেয়ে থাকেন। শিক্ষার্থীদের আনা নেওয়ার জন্য ক্যাম্পাস থেকে নিজস্ব বাস চলাচল করে। প্রতিদিন এক ঘণ্টা পর পর শার্টল সার্ভিসের মাধ্যমে ক্যাম্পাসের আসে পাশের এলাকা হতে শিক্ষার্থীদের আনা-নেওয়া করে।

এছাড়াও ঢাকা সিটি কর্পোরেশন, সাভার এবং গাজীপুর হতে প্রতিদিন সকাল ৭টায় ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্যে বাসগুলো ছেড়ে আসে এবং সন্ধ্যা ৫.৩০ ক্যাম্পাস থেকে নিদিষ্ট গন্তব্যে ছেড়ে যায়। এর জন্য শিক্ষার্থীদের কোন টাকা পয়সা দিতে হয় না। দেশের অন্যতম সেরা এই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়টি শুরু হয়েছিল ১৯৯১ সালে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রফেসর ও আইবিএর সাবেক পরিচালক এবং শিক্ষাবিদ প্রফেসর ড.এম আলিমউল্যা মিয়ান এই প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা।