অ‌গ্নি দুর্ঘটনায়  সর্বস্ব হা‌রি‌য়ে নিস্ব বাঘার ম‌নির


» কামরুল হাসান রনি | ডেস্ক ইনচার্জ | | সর্বশেষ আপডেট: ৩০ মার্চ ২০২০ - ০৮:৪০:৫০ অপরাহ্ন

বাঘা (রাজশাহী) প্রতি‌নি‌ধিঃ ম‌নির হো‌সেন। বয়স ২৩ পেরিয়েছে। বাড়ি রাজশাহীর বাঘা উপ‌জেলার জোতকা‌দিরপুর গ্রা‌মে। বাবা-মায়ের ৩য় সন্তান। চরম অর্থ সঙ্ক‌টের কার‌নে লেখাপড়া চালিয়ে যে‌তে প‌রেন নি। তাই মাত্র ১০ বছর বয়‌সেই তা‌কে নাম‌তে হয় জীবন জী‌বিকার যু‌দ্ধে। তার দু’চোখজুড়ে ছিল  স্বপ্ন ও ম‌নে ছিল প্রচন্ড সাহস।  ওই স্বপ্ন ও সাহস কে পু‌জি ক‌রে জীব‌নে  স্বাবলম্বী হওয়ার ছিল তীব্র বাসনা। একদিকে নিজের পায়ে দাঁড়ানোর স্বপ্ন, অন্যদিকে অভাব নামক দান‌বের মাঝখা‌নের দোলাচ‌লে তি‌নি বাবার দেওয়া মুলধন নি‌য়ে ২০১০ সা‌লে  উপ‌জেলার ম‌নিগ্রাম বাজা‌রে  চালু ক‌রেন দাহ‌্য তে‌লের ব‌্যাবসা।সততা ও নিরলস প‌রিশ্রমের মাধ‌্যমে খুব দ্রুত তার ব‌্যবসার প্রসারতা বৃ‌দ্ধি পায়। দোকা‌নের মাধ‌্যমেই প‌রিবর্তন ঘট‌তে থা‌কে তার অর্থনৈ‌তিক, সামাজিক ও পা‌রিবা‌রিক অবস্থার। এক পর্যা‌য়ে অর্থনৈ‌তিক স্বচ্ছলতার উজ্জল সোনালী সুর্যদ‌য়ের দ্বারপ্রা‌ন্তে পৌঁ‌ছে যাই ম‌নির। কিন্ত হঠাৎ গত ২৪ মার্চ তার জীব‌নে নে‌মে আ‌সে অমাবস‌্যার ঘোর অন্ধকার। এক‌টি অ‌গ্নি দুর্ঘটনায়  সর্বস্ব হা‌রি‌য়ে মুহ‌র্তেই নিস্ব হ‌য়ে যায় প‌রিশ্রমি ওই যুবক।

উ‌ল্লেখ‌্য, গত ২৪ মার্চ  মঙ্গলবার সকাল ১১ টার সময় আক‌ষ্ষিক ভা‌বে আগুন লা‌গে তার স্ব‌প্নের দোকা‌নে।  দাহ‌্য তে‌লের দোকান হওয়ায় মুহু‌র্তেই তা ভয়াবহ রুপ নেয়। প‌রে বাঘা ফায়ার সা‌র্ভিস টিম ও স্থানীয়‌দের সহায়তায় প্রায় ২ ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আ‌সে। কিন্তু ততক্ষ‌নে সব শেষ। তার দা‌বি অনুযা‌য়ি, নগদ ৬ লক্ষ ৫০ হাজার টাকাসহ প্রায় ২৭ লক্ষ টাকার মালামাল পু‌ড়ে বি‌লিন হ‌য়ে গে‌ছে।

এখন শুধু দুঃস্বপ্ন ও বিছা‌দের ছায়া যেন তার সম্বল। কিভা‌বে নতুন ক‌রে দোকান চালু কর‌বে, কিভা‌বে ব‌্যাংক ঝন শোধ কর‌বে। মাহাজ‌নের টাকায় বা কিভা‌বে প‌রি‌শোধ কর‌বেন! এমন নানা  প্রশ্নের উৎকন্ঠার মা‌ঝে কাট‌ছে তার জীবন।

অপর‌দি‌কে এমন অসহায় অবস্থার ম‌ধ্যে ক‌তিপয়  গনমাধ‌্যম ক‌র্মির অ‌নৈ‌তিক  দা‌বি তা‌কে নতুন ক‌রে ভা‌বি‌য়ে তু‌লে‌ছে। তি‌নি ব‌লেন, আমার  এই অসহায় অবস্থার মা‌ঝেও ক‌য়েকজন সাংবা‌দিক আমার নিকট ৫০ হাজার টাকা দা‌বি ক‌রে। আ‌মি তা‌দের  দা‌বিকৃত টাকা  দি‌তে না পারায় তারা আমার বিরু‌দ্ধে নানারকম মিথ‌্যা বা‌নোয়াট ও ভি‌ত্তি‌হিন সংবাদ প্রকাশ করছেন। যা আমা‌কে মান‌সিক  ও সামা‌জিক ভা‌বে চরম বিপর্যয়ে  ফে‌লে‌ছে।

সর্বপ‌রি আ‌মি আল্লাহর  নিকট সাহায‌্য প্রার্থনা কর‌ছি এবং আমার  দোকান পুনরায় চালু কর‌তে সক‌লের সহযো‌গিতা কামনা কর‌ছি।

এ বিষ‌য়ে বাঘা উপ‌জেলা নির্বাহী অ‌ফিসার শা‌হিন রেজা ব‌লেন, আগুন লাগার সংবাদ পে‌য়ে ওই দিন তাৎক্ষ‌নিক ঘটনাস্থল প‌রিদর্শন ক‌রে‌ছি। প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রা‌দি থাক‌লে তি‌নি তার ব‌্যাবসা চালু কর‌বেন, এ‌তে কোন বাধা নেই।