অ্যাসাইনমেন্ট আটকে বেতন আদায় নয় : শিক্ষামন্ত্রী


অ্যাসাইনমেন্ট আটকে বেতন আদায় নয় : শিক্ষামন্ত্রী
» এইচ এম মাহমুদ হাসান | | সর্বশেষ আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০২০ - ১২:২৩:৩৩ অপরাহ্ন

অ্যাসাইনমেন্টের সঙ্গে স্কুলের বেতন বা অন্যান্য ফি’র কোনো সম্পর্ক নেই বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। একই সাথে অ্যাসাইনমেন্ট আটকে বেতনের টাকা আদায় না করতে স্কুলগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। আর কোনো স্কুল যদি অ্যাসাইনমেন্ট আটকে টিউশন ফি আদায় করতে চায় তাহলে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে সরাসরি জমা দেয়ার পরামর্শও দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। গতকাল একটি বেসরকারি টেলিভিশনের টকশোতে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এক প্রশ্নের জবাবে ডা. দীপু মনি বলেন, স্কুলের উচিত শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া। তবে অনেক স্কুল ভাবতে পারে এই সুযোগে বেতন তুলে নিতে পারবে। যদি এমনটি কেউ চিন্তা করে তা ঠিক হবে না। তবে শিক্ষার্থী, অভিভাবকদের উচিৎ বেতন পরিশোধ করা। অন্যথায় প্রতিষ্ঠান শিক্ষক, কর্মচারীদের বেতন দিতে পারবে না। সেক্ষেত্রে স্কুল কলেজ বন্ধ হয়ে যাবে। স্কুল কলেজ বন্ধ হয়ে গেলে তখন শিক্ষার্থীরা অনেক বড় বিপদে পরবে। বাবা-মায়েরা যেন স্কুলের বেতন পরিশোধ করে দেয়।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, যাদের আর্থিক অবস্থা অনেক খারাপ তারা প্রতিষ্ঠানের সাথে কথা বলে পরে (বেতন) দেবার কথা বা কমিয়ে নেয়ার বা মওকুফ করার কথা আলোচনা করতে পারেন। অন্যদের যতটুকু সম্ভব বা যতটা সামর্থ্য আছে তারা যেন বেতন পরিশোধ করে দেয় প্রতিষ্ঠানকে।

তিনি আরও বলেন, স্কুল যেন অ্যাসাইনমেন্ট আটকিয়ে না রাখে, তারপরও যদি আটকিয়ে রাখে সেক্ষেত্রে অনলাইন থেকে শিক্ষার্থীরা অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে যেন  স্কুলে জমা দেয়। আর স্কুল অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণ না করলে শিক্ষার্থীরা যেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেয়।

এক প্রশ্নের জবাবে ডা. দীপু মনি বলেন, অ্যাসাইনমেন্টর জন্য আলাদা করে ফি নেয়ার কোন কথা নেই। কেউ যদি অ্যাসাইনমেন্টর জন্য আলাদা করে ফি চায় তাহলে সেই প্রতিষ্ঠান অন্যায় করছে। সেক্ষেত্রে কেউ যদি আমাদের সুনির্দিষ্টভাবে জানায় তাহলে আমরা সেই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। কিছু ফি যা আব্যশিক নয় সে ফি না নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে। তারপরেও যদি ফি চাওয়া হয় তবে শিক্ষা অধিদপ্তরে সুনির্দিষ্টভাবে লিখিত বা অনলাইনে অভিযোগ করতে হবে।