উত্তরা নিউজ I সারাবাংলা রিপোর্ট উত্তরা নিউজ I সারাবাংলা রিপোর্ট


অস্ত্র ঠেকিয়ে ডাচবাংলা ব্যাংকের এজেন্টের ১২ লাখ টাকা ছিনতাই






ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের উজিরপুর উপজেলার মেজর এমএ জলিল সেতুতে অস্ত্র ঠেকিয়ে ডাচবাংলা ব্যাংকের এজেন্টের ১২ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার দিবাগত রাতে এ ঘটনায় উজিরপুর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তবে পুলিশ বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত কাউকে চিহ্নিত কিংবা আটক করতে পারেনি।

ছিনতাইকারীদের কবলে পরা মশিউর রহমান রিয়াজ গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ডস্থ ডাচবাংলা ব্যাংকের এজেন্ট এবং একই উপজেলার মাহিলাড়া গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা আবুল হোসেন মোল্লার পুত্র। রিয়াজ জানান, তিনি ডাচ বাংলা ব্যাংকের গৌরনদীর বাটাজোর, সরিকল, চাঁদশী, বাকাল ও গৌরনদী সদর এলাকার সুপার এজেন্ট। বুধবার বিকেলে বাটাজোর, সরিকল ও গৌরনদীর এজেন্টে কালেকশনের ১২ লাখ টাকা ডাচ বাংলা ব্যাংকে জমা দিতে মোটরসাইকেলযোগে বরিশাল নগরীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। পথিমধ্যে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের উজিরপুরের মেজর এমএ জলিল সেতুর টোল প্লাজা অতিক্রম করে ব্রিজ পার হওয়ার সময় চোখে ধুলা পরে। ব্রিজের মাঝামাঝি স্থানে মোটরসাইকেল থামিয়ে চোখ পরিস্কার করছিলেন তিনি। এ সময় আকস্মিক অপর দুটি মোটরসাইকেলে আসা হেলমেট পড়া চার ব্যক্তি অস্ত্রের মুখে তার সাথে থাকা ব্যাগভর্তি ১২ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয়। তাৎক্ষনিকভাবে বিষয়টি তিনি ডাচ বাংলা ব্যাংকের সেলস ম্যানেজারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং উজিরপুর থানা পুলিশকে অবহিত করেন।

খবর পেয়ে রাতে বরিশাল জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রকিব উদ্দিন, সহকারী পুলিশ সুপার (উজিরপুর সার্কেল) আকরাম হোসেনসহ উজিরপুর থানা পুলিশের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। উজিরপুর মডেল থানার ওসি শিশির কুমার পাল বলেন, টাকা ছিনতাইয়ের খবর ছড়িয়ে পরার সাথে সাথে সকল থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। সেতুর টোল প্লাজাসহ সংশ্লিষ্ট এলাকার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে ছিনতাইকারীদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। ওসি আরও জানান, বুধবার রাত সাড়ে বারোটার দিকে ছিনতাইয়ের শিকার মশিউর রহমান রিয়াজ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন।

উত্তরা নিউজ/এস,এম,জেড