অবৈধ গ্যাস সংযোগ, ৫ কারখানায় অভিযান


» উত্তরা নিউজ | অনলাইন রিপোর্ট | সর্বশেষ আপডেট: ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ - ০৭:১২:৫৫ পূর্বাহ্ন

গ্যাসের তীব্র সংকটে রাজধানীর অনেক বাসায় যখন চুলা জ্বলে না, গ্যাস সরবরাহ নিরবিচ্ছিন্ন রাখতে সরকার এলএমজি আমদানিসহ বিভিন্ন উদ্যোগ নিচ্ছে, ঠিক এমন সময় অবৈধ গ্যাস সংযোগে বছরের বছর চলছে ঢাকার পাঁচ ডায়িং কারখানা।

এতে একদিকে গ্যাস অপচয়ের পাশাপাশি সরকার লাখ লাখ টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। মঙ্গলবার মিরপুরের বিহারী ক্যাম্পে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) অভিযানে এর সত্যতা পাওয়ার পর তাৎক্ষণিকভাবে গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। দুদকের জনসংযোগ দপ্তর এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

দুদক জানায়, অবৈধ গ্যাস সংযোগ প্রদান করে সরকারের রাজস্ব ফাঁকির অভিযোগ ছিল। অভিযোগে মিরপুর-১১ এ অবস্থিত বিহারী ক্যাম্পে বেশ কয়েকটি ডায়িং ফ্যাক্টরি অবৈধ গ্যাস সংযোগ নিয়ে ব্যবহার করছে উল্লেখ করা হয়। এরপরই দুদকের সহকারী পরিচালক ফাতেমা সরকারের নেতৃত্বে একটি অ্যানফোর্সমেন্ট টিম অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অভিযোগের সত্যতা পায়। টিম দেখে, কোনরূপ অনুমোদন ছাড়াই পাঁচ  ফ্যাক্টরিতে লাগামহীনভাবে অবৈধ সংযোগের মাধ্যমে গ্যাস ব্যবহার করা হছে। টিম তিতাসের সহায়তায় উক্ত পাঁচ ফ্যাক্টরিতে ব্যবহৃত গ্যাস সংযোগগুলো বিচ্ছিন্ন করে। একই সঙ্গে উক্ত অনিয়মের কোন কোন ব্যক্তি জড়িত অনুসন্ধান করে ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানিয়েছে।

অন্যদিকে ঝালকাঠি বিআরটিএ অফিসে অভিযান চালিয়ে ব্যাপক অনিয়মের প্রমাণ পেয়েছে দুদক। দুদকের সহকারী পরিচালক মো. হাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযানে টিম যথা নিয়মে পরীক্ষা ব্যতিরেকেই লাইসেন্স প্রদান, অর্থের বিনিময়ে অত্যন্ত তড়িঘড়ি করে শিক্ষানবিস লাইসেন্স দেয়া ইত্যাদি অনিয়মের প্রমাণ পায়।

এছাড়া স্থানীয় প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে জলমহাল দখলের অভিযোগে, পাসপোর্ট প্রদানের ঘুষ দাবি ও গ্রাহক হয়রানির অভিযোগে ও ভুয়া রেকর্ডপত্র তৈরি করে দলিল রেজিস্ট্রি করাসহ আরো বিভিন্ন অভিযোগে হবিগঞ্জ ও রংপুরে তিনটি অভিযান চালায় দুদক টিম।

উত্তরা নিউজ/এস,এম,জেড