IUBAT_uttara-suicite_PBA-702x459

উত্তরার একটি ছাত্রবাসে ফাঁসি দিয়ে এক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আত্মহত্যা করেছে। তার নাম হংস প্রসাদ হিমু। সে আইইউবিএটিতে অধ্যয়নরত ছিল। তার গ্রামের বাড়ী বরিশাল।

উত্তরার ১০ নাম্বার সেক্টরে অবস্থিত একটি ছাত্রাবাসের ষষ্ঠ তলায় থাকতেন হিমু। প্রতিদিনের মতো আজও দুপুরে সবার সঙ্গে খাওয়া-দাওয়া করে নিজের ঘরে যান তিনি। ৩ টার দিতে তার সহপাঠী অর্পিতা প্রিয়া ওই ছাত্রাবাসের ছাত্রদের ফোন করে কাঁদতে কাঁদতে হিমুর খোঁজ নিতে বলে। এরপর ডেকে, দরজা নক করে তার কোন সাড়া পাওয়া যাচ্ছিল না। তখন থানায় অবহিত করলে পুলিশ এসে দরজা ভেঙে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

সাথের কেউই তার আত্নহত্যার সম্ভাব্য কোন কারণ চিহ্নিত করতে পারছে না। তবে, সে যে বিশাদগ্রস্ত ছিল সেটা তার এক ফেসবুক পোস্ট থেকে ধারণা করা যাচ্ছে। আত্নহত্যার কিছুক্ষণ আগে সে পায়ের আঙ্গুলে ট্যাগ লাগানো মর্গে থাকা এক লাশের ছবি পোস্ট করেন।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানোর সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করছে।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / পিবিএ/জিজি

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা